২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার

শোভন-রাব্বানী নিয়ে এবার মুখ খুললেন আন্দালিভ পার্থ

আপডেট: অক্টোবর ৬, ২০১৯

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

বাংলাদেশ জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান (বিজেপি) আন্দালিভ রহমান পার্থ বলেছেন, ‘শোভন-রাব্বানীর তেমন কোনো দোষ নেই। তারা তো কোনো সিস্টেমের বাইরে নয়।’

সম্প্রতি লন্ডনে ‘প্রবাস সংলাপ’ অনুষ্ঠানে ক্যাসিনো বাণিজ্য নিয়ে কথা বলতে গিয়ে এ কথা বলেন আন্দালিভ পার্থ।

গত ১৪ সেপ্টেম্বর জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়ন প্রকল্পের জন্য বরাদ্দ অর্থ থেকে চাঁদা দাবি করার অভিযোগে দলীয় পদ থেকে অব্যাহতি দেয়া হয় ছাত্রলীগের সাবেক রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও গোলাম রাব্বানীকে।

এ ঘটনায় বিএনপিসহ আওয়ামী লীগ বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলো শীর্ষ নেতারা নানা ধরনের বক্তব্য দিলেও এ বিষয়ে এতোদিন কোনো মন্তব্য করেননি আন্দালিভ পার্থ।

তবে এবার সম্প্রতি চলমান শুদ্ধি অভিযান প্রসঙ্গে কথা বলতে গিয়ে পার্থ শোভন-রাব্বানীর চাঁদা দাবির কথা তুলে ধরেন।

তিনি বলেন, শোভন আর রাব্বানী ৮৫ কোটি টাকা ঘুষ চেয়েছে, ‘এতে সমস্যাটা কোথায়? তারা তো কোনো সিস্টেমের বাইরে যাননি। তারা দেখছে যে ৭ হাজার কোটি টাকা বেসিক ব্যাংক খেয়ে ফেলছে। ১ লাখ কোটি টাকা পাচার হয়ে যাচ্ছে। মহাসচিবদের হাতে রোলেক্স ঘড়ি, সবার লাইফস্টাইল চেঞ্জ হয়ে যাচ্ছে। ব্যাংক খেয়ে ফেলছে ক্ষমতাসীন নেতারা। প্রতিদিনই পত্রিকায় আসছে যে, এ গাড়ি নিয়ে গেছে, ও লুট করছে। তাহলে শোভন-রাব্বানীর দোষটা কোথায়?’

পার্থ’র মতে এটা সিস্টেমেরই একটা অংশ।

তিনি যোগ করেন, ‘ব্যাংক খালি করে ফেলা হচ্ছে, ১ লাখ কোটি টাকা সিঙ্গাপুরে পাচার হচ্ছে, এটা তো শোভন রাব্বানীরা বুঝছে না, ওরা শুধু শুনছে। ওরা তাহলে ভাবছে যে আমরা কি করব!’

ক্যাসিনো অভিযান প্রসঙ্গে পার্থ বলেন, ‘এই ক্যাসিনো বা শুদ্ধি অভিযান গত ৮-৯ বছর ধরে চলঝে। এগুলো যারা করছে, এর মাঝে সম্রাটের নাম আসছে, আরও অনেকের নাম আসছে। এসব শোভন-রাব্বানী দেখছে। কিন্তু তারা তো একটা ব্যাংক খেয়ে ফেলতে পারেনা না। হাজার হাজার কোটি টাকা বিদেশে পাচার করতে পারেন না। তারা পারেন লোকাল ব্যবসা করতে। এজন্য তারা এটাই চিন্তা করেছে।’

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
   
Website Design and Developed By Engineer BD Network