১০ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার

শিরোনাম
কুয়াকাটার সৈকতে ভেসে এসেছে বিশাল এক মৃত ডলফিন গ্রাম পুলিশ হত্যাকান্ডের পর অসহায় পরিবারের পাশে নেই প্রশাসন পাল্টে যাচেছ চরফ্যাশনের গ্রামীণ জনপদ : সন্ধ্যা নামলেই সৌর বাতি সুগন্ধা নদীর ভাঙ্গন প্রতিরোধে চলমান প্রকল্প পরিদর্শন করলেন পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী বরিশালে দেড় হাজার কর্মহীনদের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা সামগ্রী বিতরণ আমতলীর বারী মুগডাল-৬ জাপানে রপ্তানী বন্ধ কুয়াকাটার ধুলাসার ইউপি চেয়ারম্যান : মসজিদের টাকায় পারিবারিক কবরস্থান নির্মাণ ডিআরইউ’র সদস্যদের জন্য স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী প্রদান স্বেচ্ছাসেবক লীগের কুয়াকাটায় মানবেতর জীবনযাপন করছে কয়েক হাজার হোটেল কর্মচারী

শেখ হাসিনাকে মা ডাকলেন রানি মুখার্জি

আপডেট: অক্টোবর ১২, ২০১৯

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ব্যক্তিত্ব এবং সম্প্রতি ভারত সফরে দিল্লিতে দেয়া তার ভাষণের প্রশংসা করেছেন বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী রানি মুখার্জি।

সম্প্রতি ‘ইন্ডিয়া ইকোনোমিক সামিট-২০১৯’ উপলক্ষে চারদিনের ভারত সফরের দ্বিতীয়দিন নয়াদিল্লির আইটিসি মৌর্য হোটেলে বাংলাদেশ-ভারত বিজনেস ফোরামের (আইবিবিএফ) উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ভারতের পেঁয়াজ রফতানি বন্ধের বিষয়ে বক্তব্য দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী হিন্দি ভাষায় বলেছিলেন, পেঁয়াজ মে থোড়া দিক্কত হো গিয়া হামারে লিয়ে। মুঝে মালুম নেহি, কিউ আপনে পেঁয়াজ বন্ধ কর দিয়া! ম্যায়নে কুক কো বোল দিয়া, আব সে খানা মে পেঁয়াজ বন্ধ কারদো (পেঁয়াজ নিয়ে একটু সমস্যায় পড়ে গেছি আমরা। আমি জানি না কেন আপনারা পেঁয়াজ বন্ধ করে দিলেন। আমি রাঁধুনিকে বলে দিয়েছি, এখন থেকে রান্নায় পেঁয়াজ বন্ধ করে দাও)। অনুষ্ঠানে উপস্থিত দুই দেশের ব্যবসায়ী প্রতিনিধিরা প্রধানমন্ত্রীর এই বক্তৃতার সাড়া দেন হাসি আর করতালিতে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এভাবে হিন্দি বলার দক্ষতা দেখে মুগ্ধ হয়েছেন বলিউড অভিনেত্রী রানি।

নিজের ফেসবুক পেজে পোস্টের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দক্ষ নেতৃত্ব আর বাংলাদেশের উন্নয়নের কথা উল্লেখ করেন রানি। ওই ফেসবুক পোস্টে শেখ হাসিনাকে এশিয়ার ‘গ্রেট লিডার’ হিসেবেও আখ্যা দিয়েছেন তিনি। পাশাপাশি শেখ হাসিনাকে ‘মা’ বলেও ডেকেছেন বলিউডের এ বাঙালি অভিনেত্রী।

উল্লেখ্য, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে শেখ হাসিনার সাক্ষাতের সময় সঙ্গে ছিলেন রানি মুখার্জিও। যশরাজ ফিল্মসের প্রতিনিধি হিসেবে রাষ্ট্রীয় ওই অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছিলেন রানি।

ওই ফেসবুক পোস্টে ভারত-বাংলাদেশের যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত ‘বঙ্গবন্ধু’ চলচ্চিত্রের জন্য শুভকামনা জানান রানি। পাশাপাশি দুই দেশের সংস্কৃতিতে নিজের ভূমিকা রাখার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন তিনি। একই সঙ্গে শিগগিরই বাংলাদেশে আসার ইঙ্গিত দিয়েছেন বলিউড নায়িকা।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
 
Website Design and Developed By Engineer BD Network