২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার

 

বাগদানের পরই বিচ্ছেদের খবর

আপডেট: অক্টোবর ১৪, ২০১৯

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

প্রথমে বন্ধুত্ব, সেই বন্ধুত্ব থেকে ভাললাগা, অত:পর প্রেম। প্রেমের সফল পরিণতি বিয়ে। অথচ সব প্রেম সফল পরিণতির দিকে যায়না। তার আগেই দু’জনার দুটি পথ দুই দিকে চলে যায়। দুটি মন দীর্ঘদিন  এক হয়ে চলার পর একা হয়ে পরে ঠুনকো কারণেই। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মেরিটিয়াল অপশনে বসে ‘সিঙ্গেল’ শব্দ।

ঘর বাধার আগেই এই ‘বিচ্ছেদ’ নামের বিষ বৃক্ষটি যখন সামনে উপস্থিত হয় তখন সব আবেক হারিয়ে যায় মুহুর্তে। অন্যান্য অঙ্গনের মতো শোবিজ দুনিয়ার স্বপ্নের মানুষদের জীবনেরও ঘটে এমন দুর্ঘটনা। সম্প্রতি ঢাকার শোবিজের এমন কয়েকজন তারকার জীবনে বিচ্ছেদের সুর বেজেছে। প্রেমের সফল পরিণতির পথে হাটতে বাগদান হয় তাদের। কিন্তু সে বাগদান আর বিয়ে পর্যন্ত গড়ায়নি। তার আগেই আলাদা হয়ে গেছে দুজনার পথ।সম্প্রতিক সময়ে বাগদানের পর বিচ্ছেদের এমন খবর প্রকাশিত হয়েছে গায়িকা লিজা, নায়িকা পরীমনি ও জলির।

বাগদানের পর বিচ্ছেদ পরীমনির:

আগামী যে কোন ভালোবাসা দিবসে বিয়ে বন্ধনে আবদ্ধ হবেন ঘোষণা দিয়ে সাংবাদিক তামিমের সঙ্গে বাগদান হয়েছিলো ঢাকাই ছবির সেনসেশনাল নায়িকা পরীমনি। কিন্তু বিয়ে আর হচ্ছে কই? বাগদানের চার মাসের মাথায় বিচ্ছেদ হয় তাদের। কেনো বিচ্ছেদ হলো এমন প্রশ্নের জবাবে সে সময় পরীমনি জানিয়েছিলেন, ‘আমি এটা একা বলতে পারব না। তাহলে দুজনকেই বলতে হবে। একতরফা বলা ঠিক হবে না। শুধু যেটুকু না বললেই নয়, সেটা হলো আমার কাজকে কেউ যদি অসম্মান করে, সেখানে আমি কখনো একচুল আপস করব না। প্রেম আমি কোনো লুকোচুরি ছাড়া ঢাকঢোল পিটিয়ে করেছি। কারণ এখানে সম্মানের জায়গা ছিল। একইভাবে আমার কাজও সম্মানের জায়গা। সেটাও নিজেদের বুঝতে পারা অনেক বেশি দরকার।’

২০১৬ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি ভালোবাসা দিবসে বিনোদন সাংবাদিক এবং লাভ গুরু খ্যাত তামিমের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন পরীমনি। ২০১৯ সালে এসে সেই ভালোবাসা দিবসে বাগদান পর্বও করেন এই সুন্দরী। দুই পরিবারের উপস্থিতিতে বেশ বড় পরিসরে তাদের বাগদান সম্পন্ন হয়। সোশ্যাল মিডিয়ায় বিভিন্ন মুহূর্তের ছবি পোস্ট করতেন তারা। দেশে-বিদেশে ঘুরাঘুরির সব আপডেট ছবি পাওয়া যেতো তাদের ফেসবুকে।

বাগদান হলেও বিয়ে হয়নি গায়িকা লিজার: 

হুট করেই অসুস্থতার খবরে সংবাদের শিরোনাম হয়েছিলেন ‘ক্লোজআপ ওয়ান’ খ্যাত তারকা কণ্ঠশিল্পী সানিয়া সুলতানা লিজা। সে খবরের পরের দিনই তার ব্যক্তিগত জীবনের খবর নিয়ে শিরোনামে আসেন এ কণ্ঠশিল্পী! সে সময় লিজা বিবাহিত বলে খবর রটে। কারণ ২০১২ সালের ২ মার্চ ব্যবসায়ি েএক পাত্রের সঙ্গে তার বাগদান হয়েছিল লিজার। তবে সেটা বিয়ে পর্যন্ত গড়ায়নি! বাগদানের বছর তিনেক পর বাগদান ভেঙে গেছে। লিজাই জানানা এ কথা।

লিজা বলেন,২০১৫ সালের দিকে আমার বাগদান ভেঙে গেছে। শেষ পর্যন্ত আমাদের বিয়েটা হয়নি। যার সঙ্গে বাগদান হয়েছিল, তিনি হয়তো এত দিনে বিয়েও করে ফেলেছেন। লিজা বলেন, আমি এখন একদম একা, মানে সিঙ্গেল!

বাগদানের পর বিচ্ছেদ, আবার সব ঠিক নায়িকা জলির:

২০১৬ সালে জাজ মাল্টিমিডিয়া প্রযোজিত ‘অঙ্গার’ সিনেমায় অভিনয়ের মাধ্যমে চলচ্চিত্রে পা রাখেন কিশোরগঞ্জের মেয়ে জলি। এরপর ‘নিয়তি’, ‘মেয়েটি এখন কোথায় যাবে’ সিনেমা মুক্তি পায়। এছাড়া ‘ডেঞ্জার জোন’ সিনেমার শুটিং শেষ করে মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে। ব্যবসায়ী আরাফাত রহমানের সঙ্গে দীর্ঘ পাঁচ বছর প্রেমের সম্পর্কের পর গত ১৬ মে সন্ধ্যায় গুলশানের নিকেতনে নিজের বাসায় বাগদান হয়। বাগদানের পাঁচ মাস না যেতেই এলো বিয়ে ভেঙে যাওয়ার খবর। নায়িকা ফাল্গুনি রহমান জলির বিয়ে ভেঙে গেছে বলেই গুঞ্জন ছড়িয়েছে। রোববার দেশের প্রথমসারির একটি গণমাধ্যম এ খবর প্রকাশ করে।

তবে এ খবর ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিয়ে জলি বলেন, ‘এটা নিতান্তই ভিত্তিহীন একটি খবর। যারা ছড়াচ্ছেন তারা ব্যক্তি আক্রোশ থেকে এই কাজটি করে থাকবেন হয়তো। বিয়ে ভাঙার বিষয়ে আমি কারো সঙ্গে কোনো কথা বলিনি। আমা কারো জীবন নিয়ে রসিকতা করা অন্যায়। আরাফাতের সাথে আমার কোনো সমস্যা নেই। বিয়ের খবর আমিই গণমাধ্যমকে জানিয়েছি বিচ্ছেদ হলে আমিই সবাইকে জানাতাম।

তবে কিছুদিন আগে জলি বলেছিলেন তার সঙ্গে আরাফাত রহমানের আপাতত কোন সম্পর্ক নেই। রোববার জানালেন নিছক মজার ছলেই সে কথা বলেছিলেন তিনি। জলি বলেন, দুজনের মধ্যে যোগাযোগ নেই, কথাটা সে সময় মজা করেই বলেছিলাম। পৃথিবীর সব সম্পর্কের মধ্যেই মান-অভিমান হয়। আমাদের দুজনের মধ্যেও হালকা একটু মান-অভিমান হয়েছিল, সিরিয়াস কিছু না। কিন্তু সেই মান-অভিমান তো দুজনের সম্পর্ক ভাঙনের পর্যায়ে যায়নি। কয়েক দিনের মধ্যেই সব ঠিকঠাক হয়ে গেছে।’

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
 
Website Design and Developed By Engineer BD Network