১২ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, শুক্রবার

শিরোনাম
তেলবাহী লড়ি উল্টে গিয়ে আগুন লেগে এক জনের মৃত্যু। ভূমি বিষয়ক তথ্যাদি স্কুলের পাঠ্যক্রমে অন্তর্ভুক্ত করার উদ্যোগ গ্রহণ করো হয়েছে-ভূমিমন্ত্রী মির্জা ফকরুলরা তারেক জিয়ার নির্দেশে জনগনের সাথে প্রতারনা ও তামশা করছে-আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বিগ বার্ড ইন কেইজ: ২৫ শে মার্চ রাতে বঙ্গবন্ধুর গ্রেফতার  ঢাবি ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগে ১ কোটি টাকার বৃত্তি ফান্ড গঠিত হাইকোর্টের রায়ে ডিন পদে নিয়োগ পেলেন যবিপ্রবির ড. শিরিন জয় সেট সেন্টার’ থেকে মিলবে প্রশিক্ষণ, বাড়বে কর্মসংস্থান: পীরগঞ্জে স্পীকার বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস আগামীকাল টুঙ্গিপাড়ায় যাচ্ছেন রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী, সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন বিশিষ্ট রবীন্দ্র সংগীত শিল্পী সাদি মোহম্মদ আর নেই

ব্রিজ আছে রাস্তা নেই

আপডেট: অক্টোবর ১৪, ২০১৯

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

রাজিবপুর উপজেলার রাজিবপুর সদর, কোদালকাটি ও মোহনগঞ্জ তিনটি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত। উপজেলা সদর থেকে মোহনগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদ পর্যন্ত সাত কিলোমিটার এলাকার সংযোগের জন্য মাত্র একটি রাস্তা। গেল বন্যায় পানির স্রোতে রাস্তাটি হয়ে গেছে খানাখন্দ। পরিণত হয়েছে মরণ ফাঁদে। যেখানে হেঁটে চলাচল ছাড়া বিকল্প কোনো উপায় নেই।
উপজেলা সদর থেকে ৩ কিলোমিটার পরে দিয়ারারচর কোনাচি পাড়া রয়েছে একটি খাল। খালের দক্ষিণ প্রান্তে দিয়ারারচর কোনাচি পাড়া, হাজী পাড়া, ফকির পাড়া, মুন্সি পাড়া, গোয়ালপাড়া, ব্যাপারী পাড়া, চর নেওয়াজী, ঢাকাইয়া পাড়া, মেম্বার পাড়াসহ বেশ কয়েকটি গ্রাম। এসব গ্রামে প্রায় ২০ হাজার লোকের বসবাস। এখানে রয়েছে মোহনগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদ, ইউনিয়ন ভূমি অফিস, ৪টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ২টি বেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ১টি কামিল মাদ্রাসাসহ সরকারি বেসরকারি স্থাপনা।
এলাকাবাসীর দাবির মুখে বর্তমান সরকার প্রায় ৩১ লাখ টাকা ব্যয়ে খালের ওপর নির্মাণ করেছে ৪০ ফুটের একটি ব্রিজ।

বর্তমানে ব্রিজটি খালের ওপর অথর্বের মতো দাঁড়িয়ে খালের সৌন্দর্য বৃদ্ধি ছাড়া অন্য কোনো কাজে আসছে না ওইসব এলাকার মানুষের। সরেজমিন দেখা গেছে, ব্রিজের এপার-ওপারে নেই কোনো রাস্তাঘাট। এ নিয়ে চরম দুর্ভোগ পোহাচ্ছে দুই পারের কোমলমতি শিক্ষার্থীসহ সাধারণ জনগোষ্ঠী। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মেহেদেী হাসান জানান, ব্রিজ এবং এলাকা পরিদর্শন করেছি, ওই এলাকার রাস্তাঘাটের অবস্থা বন্যার কারণে ক্ষতি হয়েছে। মানুষজন ভোগান্তিতে আছে। এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলে ব্যাবস্থা গ্রহণ করা হবে। রাস্তা নির্মাণের বিষয়ে জানতে চাইলে রাজিবপুর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আজিজুর রহমান জানান, ‘ব্রিজটি চালু করা হয়েছে। বন্যার কারণে রাস্তা মেরামত সম্ভব হয়নি। তবে ২০১৯-২০ অর্থ বছরের মধ্যেই ঐ এলাকার রাস্তাঘাট সংস্কার করা হবে।’

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
     
Website Design and Developed By Engineer BD Network