১৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, রবিবার

শিরোনাম
তেলবাহী লড়ি উল্টে গিয়ে আগুন লেগে এক জনের মৃত্যু। ভূমি বিষয়ক তথ্যাদি স্কুলের পাঠ্যক্রমে অন্তর্ভুক্ত করার উদ্যোগ গ্রহণ করো হয়েছে-ভূমিমন্ত্রী মির্জা ফকরুলরা তারেক জিয়ার নির্দেশে জনগনের সাথে প্রতারনা ও তামশা করছে-আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বিগ বার্ড ইন কেইজ: ২৫ শে মার্চ রাতে বঙ্গবন্ধুর গ্রেফতার  ঢাবি ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগে ১ কোটি টাকার বৃত্তি ফান্ড গঠিত হাইকোর্টের রায়ে ডিন পদে নিয়োগ পেলেন যবিপ্রবির ড. শিরিন জয় সেট সেন্টার’ থেকে মিলবে প্রশিক্ষণ, বাড়বে কর্মসংস্থান: পীরগঞ্জে স্পীকার বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস আগামীকাল টুঙ্গিপাড়ায় যাচ্ছেন রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী, সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন বিশিষ্ট রবীন্দ্র সংগীত শিল্পী সাদি মোহম্মদ আর নেই

রাখে আল্লাহ মারে কে!

আপডেট: অক্টোবর ২৪, ২০১৯

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

কথায় বলে, রাখে আল্লাহ মারে কে! দোতলা থেকে পড়েও অলৌকিকভাবে বেঁচে গেল ৩ বছর বয়সী একটি শিশু। শুধু বেঁচে যাওয়া ওই নয়, ওই শিশুটির কিছুই হয়নি।

এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, শুক্রবার ভারতের মধ্যপ্রদেশের টিকামগড়ে একটি বাড়ির দোতালার ব্যালকনির রেলিং ধরে খেলা করছিল ৩ বছরের এক শিশু। হঠাৎই বাড়ির দোতলার ব্যালকনি থেকে ৩৫ ফুট নীচে পড়ে যায় শিশুটি।

তবে সেই সময়ে নিচ দিয়ে যাচ্ছিল একটি রিকশা, সেই রিকশারই সিটে গিয়ে পড়ে সে। ফলে প্রাণে বেঁচে যায় শিশুটি। সঠিক সময়ে সঠিক জায়গায় রিকশাটি পৌঁছে যাওয়ার কারই এ যাত্রায় বেঁচে গেল শিশুটি। কাছেই থাকা সিসিটিভি ক্যামেরায় সব ঘটনা ধরা পড়ে।

সিসিটিভি ক্যামেরায় ধরা পড়া ভিডিওতে দেখা গেছে, একটি সরু গলি দিয়ে রিকশা নিয়ে যাচ্ছিলেন এক ব্যক্তি। এমন সময় যেন আকাশ থেকে পড়ার মতো ওই রিকশার সিটে পড়ে যায় শিশুটি। এ ঘটনায় হতচকিত হয়ে যান রিকশাচালক। সঙ্গে সঙ্গে তিনি বাচ্চাটিকে তুলে নেন। আশপাশের লোকজন ঘটনাস্থলে ছুটে যান।

শিশুটির বাবা আশিস জইন এনডিটিভিকে বলেন, পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের সঙ্গে আমাদের বাড়ির দোতলায় খেলা করছিল আমার ছেলে। সেই সময় আমার বাবা এবং বোনও সেখানে ছিল। খেলা করতে করতে সে ব্যালকনিতে চলে যায়। সে রেলিং ধরে ঝুলতে থাকে। পরে নিজের ভারসাম্য ধরে রাখতে না পেরে সে পড়ে যায়।

তিনি বলেন, সেই সময় ঈশ্বরের দূতের মতো সেখান দিয়ে যাচ্ছিলেন এক রিকশাচালক। তিনিই আমার ছেলেকে বাঁচান। আমরা সঙ্গে সঙ্গে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাই, সেখানেই তার সিটি স্ক্যান এবং অন্যান্য পরীক্ষা হয়।

তবে এত উঁচু থেকে পড়ে গেলেও শিশুটির কোনো ক্ষতি হয়নি। সে ভাল আছে বলেই জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

আরও
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
     
Website Design and Developed By Engineer BD Network