১১ই সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার

খাবার খেয়েই তরুণীর রোজগার!

আপডেট: অক্টোবর ২৬, ২০১৯

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

অনেকে অনেক কিছু করে আয়-রোজগার করে থাকেন। তাই বলে পেটভরে খাবার খেয়ে রোজগার! হ্যাঁ, শুনতে অবাক লাগলেও এমনটাই ঘটেছে।

এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে জানা গেছে, যুক্তরাজ্যের ইউটিউবার ফ্যাবিও ম্যাটিসন খাবার খেয়েই রোজগার করেন। এটা তার শুধু রোজগারের পথই না, নিজের আহার ব্যাধিকে নিয়ন্ত্রণ করার পথও।

জানা গেছে, ফ্যাবিও ম্যাটিসন অন্যের সামনে খাবার খেতে পারতেন না। বহু বছর ধরেই তার এ সমস্যা ছিল।

‘ডেইলি মেইল’-কে তিনি জানান, পরিস্থিতি এমন জায়গায় চলে গিয়েছিল, তিনি ঘরের মধ্যেই স্টোভে রান্না করে খেয়ে নিতেন। রান্নাঘরেও যেতেন না। কিন্তু মুকব্যাং-এর ভিডিও দেখে তার উপলব্ধি হয়, খাওয়া ব্যাপারটা খুব খারাপ ন‌য়।

তিনি বলেন, ‘হাজার হাজার মানুষ আমাকে অনলাইনে খেতে দেখছেন। এর ফলে আমি আবার খাওয়া ব্যাপারটা উপভোগ করতে শুরু করি। আমি ১৯ বছর থেকেই খাওয়া নিয়ে সমস্যায় ভুগছিলাম। আমার ভয় হত খেলে ওজন বেড়ে যাবে। এবং অন্যের সামনে খেলে আমি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগতাম।’

ফ্যাবিও জানান, ‘আমি অনেক মানুষকে দেখেছি যারা উদ্বেগে ভুগছেন, তারা আমাকে মেসেজ করেন। তারা জানিয়েছেন আমার ভিডিও দেখে তাদের উদ্বেগ কমেছে। এইসব কথা আমার আত্মবিশ্বাস বাড়াতে সাহায্য করে।’

‘ডেইলি মেইল’ জানায়, ২০১৮ সালে জুনে ফ্যাবিও তার প্রথম ভিডিও পোস্ট করেন। এ পর্যন্ত ২০০ ভিডিও পোস্ট করেছেন তি‌নি! ৮ হাজারেও বেশি সাবস্ক্রাইবার রয়েছে তার। এখন তিনি নিজের আহারের ভিডিও আপলোড করে রোজগার করেন। একে তিনি ‘হোম থেরাপি’ বলেন।

ভিডিওতে তার খাদ্যগ্রহণের বৈচিত্রময় সব মুহূর্ত তুলে ধরা হয়েছে। বার্গার থেকে চকলেট কেক, কিংবা নিছকই চিপস- সব রকমের খাওয়ার ভিডিও আপলোড করেন তিনি।

উল্লেখ্য, ২০১০ সালে কোরিয়ার মুকব্যাং জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন ইউটিউবে খাবার খেয়ে। সেই থেকে এই ট্রেন্ড শুরু হয়। এটাই অনুসরণ করেছেন ফ্যাবিও।

আরও

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
   
Website Design and Developed By Engineer BD Network