১৯শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, শুক্রবার

শিরোনাম
সরকারী কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের নামে দূর্নীতির অভিযোগ উঠায় দলের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হচ্ছে-গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী প্রধানের শ্রদ্ধা গোপালগঞ্জে আওয়ামী লীগের ৭৫ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত শেখ হাসিনার হাত ধরে বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের রোল মডেল-আ.লীগ নেতৃবৃন্দ টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে তিন সচিবের শ্রদ্ধা আশুলিয়ায় নারী পোশাক শ্রমিককে শ্বাসরোধ করে হত্যা, গ্রেপ্তার ১ । হু হু করে বাড়ছে তিস্তার পানি নদীপাড়ে আতঙ্ক বিরাজ সাবেক আইজিপি বেনজীর আহমেদের সাভানা পার্ক পরিদর্শনে দুদক প্রতিনিধি দল, সাংবাদিকদের বাঁধা পার্ক কর্তৃপক্ষের বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র না তবুও ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদুল্লা-হিল-গালিব সাভারের ট্রাক চাপায় দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

সাকিবের কারণে বিসিবির ক্ষতি ১০০ কোটি টাকা, দাবি পাপনের

আপডেট: অক্টোবর ৩০, ২০১৯

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

সাকিব আল হাসানের কারণে ১০০ কোটি টাকা ক্ষতি হচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি)। ক্রিকেটারদের ধর্মঘট চলাকালীন গ্রামীণফোনের সঙ্গে চুক্তি করেন তিনি। মূলত এ কারণেই লোকসান গুনতে হচ্ছে বোর্ডকে। খোদ বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন এ দাবি করেছেন।

তিনি বলেন, অতীতে দেখা গেছে, খেলোয়াড়রা আলাদা চুক্তি করলে বোর্ড স্পন্সরশিপ পায় না। তাই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়, কোনো ক্রিকেটার টেলিকম কোম্পানির সঙ্গে চুক্তি করতে পারবে না। অন্য কোথাও চুক্তি করলে সেটাও বোর্ডকে জানাতে হবে। আর চুক্তি করতে না দেয়া হলে খেলোয়াড়দের ক্ষতিপূরণও দেয়া হয়।এছাড়া কোম্পানিগুলোকেও বলে দেয়া হয়েছে কারও সঙ্গে চুক্তি করতে পারবে না।

তিনি বলেন, আমরা আগামী বছর দলের স্পন্সরশিপ বিক্রি করব। আমরা চেয়েছিলাম, তাতে অংশ নিক টেলিকম কোম্পানিগুলো। এখন তো তারা আসবে না। কারণ, এরই মধ্যে সাকিবের সঙ্গে চুক্তি করে ফেলেছে একটি কোম্পানি। এতে সে ২/৩ কোটি টাকা পাবে। অন্যদিকে বোর্ড কমপক্ষে ১০০ কোটি টাকা হারালো।

এতে অন্য খেলোয়াড়রা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে উল্লেখ করে পাপন বলেন, এটা সাকিব আইনগতভাবে পারে না। তার সঙ্গে চুক্তিতে পরিষ্কার লেখা আছে, বোর্ডের অনুমোদন ছাড়া কোনো কোম্পানির সঙ্গে চুক্তি করতে পারবে না সে। এজন্য জবাব চেয়ে তাকে চিঠি দেয়া হয়েছে। তাতে খেপে গেছেন এক বোর্ড পরিচালক। উনি বলেন- এটা কেন করলেন? করা ঠিক হলো? তো কি করব, সাকিবকে ছেড়ে দেব?

তিনি বলেন, সাকিব যদি ১০০ কোটি টাকা পেতো তাও একরকম ছিল। সে তো পেয়েছে মাত্র ২/৩ কোটি। আর আমাদের এত টাকা লোকসান করে দিল? এটা হতে পারে না।

২ বছর আগে চিহ্নিত জুয়াড়ির কাছ থেকে ম্যাচ ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব পেয়েছিলেন সাকিব। সেটি গ্রহণ না করলেও চেপে যান তিনি। সেই অপরাধে ১৮ মাস আইসিসির নিষেধাজ্ঞায় পড়তে পারেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
     
Website Design and Developed By Engineer BD Network