১২ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার

 

ক্ষমা চাইলেন ইউটিউবার মারজিয়া আক্তার মিমি

আপডেট: নভেম্বর ২৬, ২০১৯

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রকাশিত ‘মোগো বাড়ি বরিশাল’ শিরোনামের একটি মিউজিক ভিডিও নিয়ে বিতর্কের সৃষ্টি হয়। ওই মিউজিক ভিডিওতে দেখা গেছে, বরিশাল নগরের কীর্তনখোলা নদীতীর সংলগ্ন শহীদদের বধ্যভূমির স্মৃতিস্তম্ভে জুতা পায়ে নাচছেন এক তরুণী ও দুই তরুণ। আর এ ভিডিও বানানোর জন্য ফেসবুকে সবার কাছে নিঃশর্ত ক্ষমা চেয়েছেন ইউটিউবার মারজিয়া আক্তার মিমি।

রোববার (২৪ নভেম্বর) সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিজের ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে সবার কাছে ক্ষমা চান তিনি। একই সঙ্গে বিতর্কিত ভিডিওটি সরিয়ে সংশোধন করে নতুন ভিডিও ইউটিউবে ছাড়া হয়েছে বলেও জানান।

মারজিয়া আক্তার মিমির ফেসবুক পোস্টটিতে লিখেছেন-‘মোগো বাড়ি বরিশাল গানের ভিডিওতে যে ভুলটি ছিল সেটি সম্পূর্ণ অনিচ্ছাকৃত এবং আমরা পুরো টিম এটার জন্য আন্তরিকভাবে দুঃখিত ও সবার কাছে নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা করছি। ইতোমধ্যে আমরা পূর্বের ভিডিওটি মুছে ফেলেছি এবং সংশোধন করে পুনরায় আপলোড করেছি। স্বাধীনতার স্বপক্ষের শক্তি হিসেবে মুক্তিযুদ্ধ এবং শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি আমাদের শ্রদ্ধা অপরিসীম। সম্পূর্ণ অনাকাঙ্ক্ষিত এই ভুলটি দয়া করে করে সবাই ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন বলে আশা করছি।’

সম্প্রতি ‘মোগো বাড়ি বরিশাল নামে একটি মিউজিক ভিডিও পোস্ট করেন ইউটিউবার মিমি। মিউজিক ভিডিওতে, বরিশাল নগরের কীর্তনখোলা নদী তীর সংলগ্ন মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের বধ্যভূমির স্মৃতিস্তম্ভে জুতা পায়ে নাচতে দেখা যায় এই তরুণী ও দুই তরুণকে। মুক্তিযুদ্ধ ও মুক্তিযোদ্ধাদের অবমাননাকর এমন কাণ্ডে ফেসবুক পোস্টে নিন্দা জানাতে শুরু করেন সচেতন মহল।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
 
Website Design and Developed By Engineer BD Network