২০শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার

ভোলায় রাজনৈতিক নেতার প্রভাবে দুই লঞ্চঘাটে ভিরতে পাচ্ছেনা একটি কোম্পানীর লঞ্চ

আপডেট: ডিসেম্বর ২, ২০১৯

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ভোলার দৌলতখান ও হাকিমুদ্দিন লঞ্চঘাটে দীর্ঘদিন যাবত ঘাট দিতে দিচ্ছে না এমভি ফারহান-৩, ৪, ৫ ও ৬ লঞ্চগুলোকে। স্থানীয় উচ্ছৃঙ্খল যুবকদের কারণেই লঞ্চগুলো ঘাটে ভিড়তে পারছেনা বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ফলে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে যাত্রীদের। দুর্ভোগের কারণে যাত্রীদের মাঝে ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। সূত্র জানায়, ঢাকা-হাতিয়া নৌপথের এমভি ফারহান-৩ ও এমভি ফারহান-৪ এবং ঢাকা-বেতুয়া নৌপথে এমভি ফারহান-৫ ও ফারহান-৬ লঞ্চগুলি দীর্ঘদিন যাবত উল্লেখিত নৌপথে চলাচল করে আসছিল। কিন্তু গত নভেম্বর মাসের ২৬ তারিখ থেকে একদল উচ্ছৃঙ্খল ও বিপথগামী যুবকের বাধার কারণে লঞ্চগুলো ঘাটে ভিড়াতে পারছে না সংশ্লিষ্ট লঞ্চ কর্তৃপক্ষ।

বাধা প্রদানকারী তরুণদের কাছে লঞ্চ ভিড়তে না দেওয়ার কারণ জানতে চাইলে তারা স্থানীয় প্রভাবশালী এক জনপ্রতিনিধির নাম নিয়ে বলেন, নির্দেশ আছে দৌলতখান ও হাকিমুদ্দিন লঞ্চঘাটে এমভি ফারহান-৩, ৪, ৫ ও ৬ লঞ্চগুলি ঘাট ধরতে পারবেনা। আমরা তার নির্দেশ পালন করছি মাত্র।

পর্যবেক্ষক মহলের অবিমত, কোন জনপ্রতিনিধি এমনভাবে জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করতে পারেন না। জনপ্রতিনিধিরাই যদি জনগণকে দুর্ভোগে ফেলেন তাহলে তিনি জনপ্রতিনিধি হয়ে জনসেবা করবেন কিভাবে?

এ ব্যাপারে দৌলতখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জানান, লঞ্চ ভিড়তে না দেয়ার সঙ্গত কোন কারণ আমার জানা নাই। জেনে জানাতে পারবো। এ ব্যাপারে বোরহানউদ্দিন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জানান, বিষয়টি আমি অবগত আছি। এলাকায় স্থানীয়ভাবে এ বিষয়টি নিয়ে পরিস্থিতি স্বভাবিক নয়। তবে এলাকাবাসীর সাথে আলোচনার মাধ্যমে দ্রুত এ সমস্যার সমাধান করা হবে।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
   
Website Design and Developed By Engineer BD Network