২৫শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, রবিবার

বানারীপাড়ায় স্কুল ছাত্রীকে উত্যাক্ত ও শ্লীলতাহানীর মামলা : সহপাঠি গ্রেফতার

আপডেট: ডিসেম্বর ১৮, ২০১৯

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

জি.এম রিপন,বানারীপাড়া থেকে
বানারীপাড়ায় স্কুল ছাত্রীকে উত্যাক্ত ও শ্লীলতাহানী করার এক মাস পর তার সহপাঠি সাকিবকে আসামী করে থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।
সোমবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলার চাখার ওয়াজেদ মেমোরিয়াল উচ্চ বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্রী ভিকটিম বাদী হয়ে তার সহপাঠি চাখার ফজলুল হক ইনস্টিটিউশনের দশম শ্রেণীর ছাত্র সাকিব হোসেনকে আসামী করে বানারীপাড়া থানায় এ দায়ের করেন। থানার অফিসার ইনচার্জ শিশির কুমার পাল এ মামলাটি তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যাবস্থা গ্রহনের জন্য এস.আই আসাদুজ্জামানকে নির্দেশ দেন। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এস.আই আসাদুজ্জামান ওই রাতেই চাখার এলাকা থেকে সাকিবকে গ্রেফতার করেন। মঙ্গলবার সকালে গ্রেফতারকৃত আসামী সাকিবকে কোর্ট হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে বলে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এস.আই আসাদুজ্জামান জানান।
এ বিষয়ে মামলা ও থানা সূত্রে জানা গেছে, চাখার সাবরেজিষ্ট্রি অফিসের দলিল লেখক (মুহুরী) সান্টু সরদারের ছেলে ও ফজলুল হক ইনস্টিটিউশনের দশম শ্রেণীর ছাত্র মো. সাকিব হোসেন তার পাশর্^বর্তী চাখার ওয়াজেদ মেমোরিয়াল উচ্চ বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্রী (১৫)কে দীর্ঘ দিন ধরে স্কুলে যাওয়া-আসার পথে উত্যাক্ত করে আসার পাশাপাশি সে ১৪ নভেম্বর দুপুরে ভিকটিমের বসত ঘরে প্রবেশ করে তাকে শ্লীলতাহানী করে।
এ বিষয়ে ওসি (তদন্ত) মো.জাফর আহম্মেদ জানান, সোমবার ওই ঘটনায় দায়ের করা মামলার এক মাত্র আসামী সাকিব হোসেনকে গ্রেফতার করে কোর্ট হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।
এদিকে থানা হাজতে থাকা অবস্থায় শ্লীলতাহানীর অভিযোগ অশি^কার করে চাখার ফজলুল হক ইনস্টিটিউশনের দশম শ্রেণীর ছাত্র মো. সাকিব হোসেন জানান, দীর্ঘ দিন ধরে তার সহপাঠি চাখার ওয়াজেদ মেমোরিয়াল উচ্চ বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর এক ছাত্রীর সঙ্গে তার প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছিল। এনিয়ে অনেক দিন ধরে তাদের দুই পরীবারের মধ্যে কথার কাটাকাটি চলে আসছিল। এরই জের ধরে সোমবার তার বিরুদ্ধে থানায় শ্লীলতাহানীর মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে সাকিব ও তার বাবা সান্টু সরদার জানিয়েছেন। এবিষয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ শিশির কুমার পাল যুগান্তরকে বলেন, ভিকটিম তার কাছে অভিযোগ করেছেন, আসামী সাকিব তাকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়েছিল। সে তার ওই প্রস্তাবে রাজি না হওয়ার কারণে সাকিব তাকে শ্লীলতাহানী করে। অপরদিকে গ্রেফতারকৃত আসামী সাকিবও তাদের কাছে ভিকটিমের সঙ্গে তার প্রেমের সম্পর্ক চলে আসার কথা দাবী করেছে। তিনি পুরো বিষয়টি তদন্ত পূর্বক প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যাবস্থা গ্রহন করবেন বলেও জানিয়েছেন।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
   
Website Design and Developed By Engineer BD Network