৩১শে মার্চ, ২০২০ ইং, মঙ্গলবার

অধ্যাপক ডাঃ এইচ এন সরকারকে বিদায় সংবর্ধনা

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ১১, ২০২০

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

গোপালগঞ্জ শেখ শায়েরা খাতুন মেডিক্যাল কলেজ

আবু তালহা রিমন :

শেবাচিম হাসপাতালের সাবেক মেডিসিন বিভাগের অধ্যাপক ও গোপালগঞ্জ শেখ শায়েরা খাতুন মেডিক্যাল কলেজের মেডিসিন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডাঃ এইচ এন সরকারকে বিদায় সংবর্ধনা দিয়েছেন গোপালগঞ্জ শেখ সায়েরা খাতুন মেডিকেল কলেজের শিক্ষক ছাত্র/ছাত্রীবৃন্দ।

মঙ্গলবার কলেজ অডিটোরিয়ামে এ সংবর্ধনা দেন তারা।

শেখ সায়েরা খাতুন মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ ডাঃ লিয়াকত হোসেনের সভাপত্বিতে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন অধ্যাপক ডাঃ রাফি আহমেদ, অধ্যাপক ডাঃ মাহবুবা, অধ্যাপক ডাঃ সুভাস চন্দ্র ভাদুরী সহ শিক্ষক ছাত্র/ছাত্রীবৃন্দ।

দীর্ঘ ৩৬ বছর কর্ম জীবন কাটিয়ে গত ৩ ফেব্রয়ারী ঐ কলেজ থেকে অবসর নেন অধ্যাপক ডাঃ এইচ এন সরকার।

মেধাবী ছাত্র অধ্যাপক ডাঃ এইচ এন সরকার

১৯৭৬ সালে উজিরপুরের কারফা পাবলিক একাডেমি থেকে এস.এস.সি পাশ করেন তিনি।

মেধাবী ছাত্র হওয়ার কারনে প্রত্যেক শ্রেনীতে ১ম স্থান অর্জন করেন অধ্যাপক ডাঃ এইচ এন সরকার।

১৯৭৮ সালে বরিশাল ব্রজমোহন কলেজ থেকে এস. এইচ.সি পাস করেন।

তার মেধা ছিল তিক্ষ।

এরপর বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ থেকে ১৯৮৪ সালে এমবি বিএস পাস করে বিসিএস পরীক্ষা দিয়ে বেতাগী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রেজিষ্ট্রার হিসাবে যোগদান করেন।

২০০৪ সালে বাংলাদেশ কলেজ অব ফিজিসিয়ানস এবং সার্জনস অব বাংলাদেশ থেকে ইন্টার্নাল মেডিসিন ওপর এফসিপিএস পাস করেন ।

২০১১ সালে ইংল্যান্ডের রয়েল কলেজ অফ সিজিসিয়ানস থেকে এম আর সিপি ও ২০১৬ সালে নিউরোর ওপর এম আর সিপি, ২০১৩ সালে এডিন থেকে এফ আর সিপি সর্বশেষ ২০১৯ সালে গø্যাস্কো থেকে এফ আর সিপি ডিগ্রী অর্জন করেন।

তিনি ১৯৯৫ সাল থেকে বিভিন্ন মেডিকেল কলেজে শিক্ষকতা সহ পরিÿক হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন।

তিনি একজন মেডিসিন ও নিওরো মেডিসিন বিশেষজ্ঞ।

তিনি একজন লেখক

মেডিকেল স্বাস্থ্য বিজ্ঞানের ওপর মোট ৯টি বই লেখেন ডাঃ এইচ এন সরকার।

তার লেখা বই আন্তর্জাতীক প্রকাশনা অধিদপ্তর এলসিভিআর, জেপি এবং সিবিসি থেকে প্রকাশিত হয়।

প্রথম বই প্রকাশিত হয় ২০০৮ সালে ।

তার লেখা দুইটি বই বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নামে উৎসর্গ করেন তিনি।

জাতীয় ও আন্তর্জাতিক বিভিন্ন বিষয়ের উপর ৫০টি লেখা জার্নালে এর প্রতিষ্ঠাতা তিনি।

এছাড়াও তিনি বাংলাদেশ সোসাইটি অব মেডিসিন থেকে ২০১৮ সালে অথরচ্ এ্যায়ার্ড পান।

ভারতের খ্যাতিমান সংগঠন রাইটার্স ওয়াল্ডের আন্তর্জাতিক মৈত্রি এ্যায়ার্ড ২০১৯ শে ভূষিত হয়েছেন।

সর্বশেষ ২০১৯ সালে নেপাল বাংলাদেশ ফেন্ডস্সীপ এ্যায়ার্ড পান তিনি।

ডায়াবেটিস্ রোগীদের বিনারক্তে ব্লাড সুগার মাপার যন্ত্র আবিষ্কার করেন অধ্যাপক ডাঃ এইচ.এন সরকার।

অধিকতর পরীক্ষা নিরীক্ষার জন্য বাংলাদেশ সোসাইটি অব মেডিসিন গবেষনা বৃত্ত দিয়েছেন।

তিনি একজন সমাজসেবক

অধ্যাপক ডাঃ এইচ.এন সরকার, সমাজসেবা মূলক কাজ করতেন প্রতিনিয়ত।

চিকিৎসা সেবার পাশাপাশি তিনি বছরের মহান ভাষা দিবস, মহান স্বাধীনতা দিবস, মহান বিজয় দিবসে তার নিজ গ্রাম উজিরপুর উপজেলা কারফা গ্রামে শত শত গরীব ও দুস্তদের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক দ্বারা ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প গঠন করে ফ্রি চিকিৎসা দেন।

এছাড়া ২০১১ সালে কারফা গ্রামে গরীব মানুষের সেবায় সরলামঙ্গল ফাউন্ডেশন নামে একটি সেবামূলক প্রতিষ্ঠান গড়েন তিনি।

এই প্রতিষ্ঠানের উদ্দ্যেগে প্রতি বছর ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প মন্দির, রাস্তা ঘাট নির্মান করেন। তিনি নগরীর প্যারারা রোড, মেট্রো ডায়াগনষ্টিক সেন্টার নিয়মিত রোগী দেখেন।

উজিরপুর উপজেলা জল্লা ইউনিয়নে কারফা গ্রামে এক সম্ভ্রান্ত পরিবারে ১৯৬১ সালের ৪ ফেব্রয়ারী জন্ম গ্রহন এইচ.এন সরকার পুরো নাম হরেন্দ্র নাথ সরকার।

তার পিতার নাম মঙ্গল চন্দ্র সরকার, মাতাঃ সরলা রানী সরকার।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
Website Design and Developed By Engineer BD Network