৩১শে মে, ২০২০ ইং, রবিবার

 

মানুষের সেবা করতে গিয়ে মরে গেলেও শান্তি পাবো-ডাঃ মাহাবুব আলম মির্জা

আপডেট: মে ১৩, ২০২০

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

শামীম আহমেদ

মহামারি করোনা ভাইরাসের চলমান দুূর্যোগে বাংলাদেশের অসংখ্য চিকিৎসক ও সেবিকারা (নার্স) করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর দেশজুড়ে স্বাস্থ্য সেবায় যখন চরম হতাশা বিরাজ করছে। ঠিক সেই সংকটময় অবস্থায় প্রতিদিন জীবনের ঝুঁকি নিয়ে বিভিন্ন রোগীদের আন্তরিকতার সাথে চিকিৎসা সেবা দিয়ে যাচ্ছেন ডাঃ মাহাবুব আলম মির্জা নামের এক চিকিৎসক।
মেডিক্যালে নিয়মিত রোগীদের সেবা দিয়ে যাওয়া ডাঃ মাহাবুব আলম মির্জা বর্তমানে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের সহকারি রেজিস্টার (সার্জারি-২) হিসেবে কর্মরত রয়েছেন। বুধবার সকালে সাথে আলাপকালে এ আদর্শবান চিকিৎসক বলেন, জীবনে যতোদিন বেঁচে আছি, মানুষের সেবা দিয়ে যাবো। আর মানুষের সেবা করতে গিয়ে মরে গেলেও শান্তি পাবো।
শেবাচিমে নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি ডাঃ মাহাবুব আলম মির্জা গৌরনদী সদরের একটি ভাড়াটিয়া বাসায় সুনামের সাথে অসহায় ও দুঃস্থ রোগীদের সেবা দিয়ে যাচ্ছেন। গৌরনদী উপজেলার শাওড়া গ্রামের এক সম্ভান্ত মুসলিম পরিবারের সন্তান মাহবুব আলম মির্জা ঢাকার স্যার সলিমুল­াহাহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল থেকে এমবিবিএস পাস করেছেন।
৩৩ তম বিসিএস পরীক্ষায় কৃতিত্বের সাথে উত্তীর্ণ হওয়ার পর তিনি ডাক্তার হিসেবে প্রথমে আগৈলঝাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মেডিকেল অফিসার হিসেবে যোগদানের পর বেশ অল্পদিনেই তিনি আগৈলঝাড়াবাসীর কাছে গরীবের ডাক্তার হিসেবে ব্যাপক সুনাম অর্জন করেন। পরবর্তীতে তিনি গৌরনদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার হিসেবে দীর্ঘ তিন বছর ব্যাপক সুনামের সাথে দায়িত্বপালন করেছেন। বর্তমানে তিনি বরিশার শের-ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের সহকারি রেজিস্টার (সার্জারি-২) এর দায়িত্ব পালন করছেন।#

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
Website Design and Developed By Engineer BD Network