৩১শে মে, ২০২০ ইং, রবিবার

 

ঘূর্ণিঝড় আম্পানে বরিশাল অঞ্চলে শিশুসহ দুজনের মৃত্যু

আপডেট: মে ২০, ২০২০

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
ঘূর্ণিঝড় আম্পান আঘাত হানতে শুরু করেছে উপকূলীয় জেলা পটুয়াখালীতে। প্রচারণা কাজ চালাতে গিয়ে পানিতে ডুবে সিপিপির টিম লিডার ও গাছের চাপায় এক শিশুসহ দুজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।
ঘূর্ণিঝড় আম্পানের কারণে সাইক্লোন সেল্টারে লোকজনকে নিরাপদে আশ্রয় নিতে প্রচারণা কাজ চালাতে গিয়ে সকালে নৌকা ডুবে কলাপাড়া উপজেলার ধানখালী ইউনিয়নের সিপিপির টিম লিডার মোঃ শাহ আলম মারা যান। এদিকে পটুয়াখালীর গলাচিপার পানপট্টি ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের খরিদা গ্রামে ঘূর্ণিঝড় আম্পানে মো রাশেদ (৫) সন্ধ্যার কিছু আগে আশ্রয় কেন্দ্রে যাবার সময় গাছের ডাল ভেঙ্গে পড়ে নিহত হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পটুয়াখালী জেলা প্রশাসক মোঃ মতিউল ইসলাম চৌধুরী।
এদিকে ঘূর্ণিঝড় আম্পানের প্রভাবে সমুদ্র সৈকত কুয়াকাটাসহ গোটা উপকুলীয় এলাকায় প্রচণ্ড বেগে ঝড়ো বাতাসের সাথে বৃষ্টি বইছে। সন্ধ্যার পর থেকে সমুদ্রে বড় বড় ঢেউ আঁচড়ে পড়ছে।

ঝড়ে গলাচিপার পানপট্টি বাজারের ১০/১২টি দোকান উপড়ে পরেছে। পায়রা নদীর পানি বিপদসীমার ১৭ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এতে কলাপাড়ার ও রাঙ্গাবালীর উপজেলার ১৭টি চরের ২০টি গ্রাম পানিতে প্লাবিত হয়েছে। তবে আর কোন হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।
এ পর্যন্ত জেলায় ৭৫৩টি সাইক্লোন সেল্টারে সারে ৩ লাখ মানুষসহ ৮০ হাজার গবাদিপশু আশ্রয় নিয়েছে। বিকেল থেকে পটুয়াখালীর বিচ্ছিন্ন চরাঞ্চল থেকে সাধারণ মানুষদের ট্রলারযোগে মূল ভূখণ্ডে সরিয়ে নেয় প্রশাসন।
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
Website Design and Developed By Engineer BD Network