৮ই আগস্ট, ২০২০ ইং, শনিবার

 

বরিশাল নগরীর কাজীপাড়ায় চাচী ও তার মেয়ের কোপে ভাতিজি হাসপাতলে

আপডেট: জুলাই ২৫, ২০২০

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

 

বরিশাল নগরীর ২২ নং ওয়ার্ড কাজীপাড়া এলাকায় তুচ্ছ ঘটনার জের ধরে চাচী ও চাচাতো বোনের হামলায় রক্তাক্ত হয়ে শেবাচিম হাসপাতালে মুমূর্ষ অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছে ভাতিজি সোনিয়া শারমিন।
এসময় চাচি ও তার মেয়ে ঘর ভাঙচুর চালিয়ে স্বর্ণালংকার ও টাকা পয়সা ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

শনিবার ২৫ জুলাই সকাল ১১ টায় ভাতিজির নিজ ভাড়াটিয়া বাসা সাবেক কাউন্সিলর শহিদুল ইসলাম তালুকদারের বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে।

আহত সোনিয়া বৈদ্য পাড়া এলাকার আনোয়ারুল কাদেরের মেয়ে ও নাহিদ হোসেনের স্ত্রী।
এবং অভিযুক্ত রুবি বেগম নতুল্লাবাদ শেরেবাংলা সড়কের আজাদ রহমানের স্ত্রী।

আহত সোনিয়া জানান,দীর্ঘদিন ধরে সোনিয়া শারমিনের সাথে তার চাচি আজাদ রহমানের স্ত্রী রুবি বেগমের পূর্ব বিরোধ চলে আসছে।
প্রায় সময় তুচ্ছ বিষয় নিয়ে ভাতিজি সোনিয়া শারমিন কে চাচি রুবি বেগম ও তার মেয়ে শিরোপা ইসলাম বিভিন্ন ভয়-ভীতির সহ প্রাণনাশের হুমকি দেয়।
ঘটনার দিন তুচ্ছ বিষয় নিয়ে রুবি এবং শিরোপা পরিকল্পিতভাবে শারমিন বেগমের ভাড়া থাকা বাসায় হামলা চালায়। এসময় অতর্কিতভাবে সোনিয়া শারমিন কে ধারালো অস্ত্র দিয়ে হত্যার চেষ্টায় কুপিয়ে রক্তাক্ত করে রুবি এবং শিরোপা। পাশাপাশি ঘর ভাঙচুর চালিয়ে স্বর্ণালংকার টাকাপয়সা লুটপাট করে নিয়ে যায়।

স্থানীয় ও পরিবারের লোকজন সোনিয়া শারমিন কে উদ্ধার করে গুরুতর অবস্থায় বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন।
সোনিয়ার মাথার দুই পাশে ধারালো অস্ত্রের আঘাতে মারাত্মক জখম রয়েছে।
তবে অবস্থার অবনতি হলে যেকোনো সময় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা যেতে পারে বলে জানিয়েছেন হাসপাতালের সার্জারি ইউনিট ১ কর্তব্যরত চিকিৎসক।

হামলাকারী রুবি বেগমের স্বামী আজাদ রহমান জানান, আমার স্ত্রী রুবি ও মেয়ে শিরোপা ভাতিজি সোনিয়া শারমিন কে কুপিয়ে রক্তাক্ত করার ঘটনাটি সত্য।
রুবি বেগম আমার স্ত্রী বটে কিন্তু একজন দাজ্জাল মহিলা। সে কাউকে পরোয়া করে না। কখনো কখনো আমার উপরে নির্যাতন চালায়।আমি আমার স্ত্রী ও মেয়েকে নিয়ে মানসিকভাবে বিপর্যয় এর ভিতরে আছি।
হামলা করার বিষয়ে ভালো-মন্দ আমি কিছুই জানিনা। আমার ভাতিজি কে হামলা করার ঘটনায় সে যদি আইনানুগ ব্যবস্থা নেয় তাতে আমি কোন বাধা দিব না।

এদিকে এলাকাবাসী জানান, শেরেবাংলা সড়কে হাওলাদার বাড়িতে বসবাসরত রুবি ও তার মেয়ে র কর্মকাণ্ডে এলাকার মানুষ অতিষ্ঠ হয়ে আছে। এলাকাবাসী রুবি বেগমকে একজন দাজ্জাল মহিলা হিসেবে আখ্যায়িত করেন।

এদিকে এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে আহত সোনিয়ার স্বজনরা জানান

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
Website Design and Developed By Engineer BD Network