৫ই আগস্ট, ২০২০ ইং, বুধবার

 

ডাঃ মনীষা চক্রবর্তীর অফিসে হামলা : আহত ৫

আপডেট: জুলাই ২৯, ২০২০

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বরিশালে করোনাকালে ফ্রি অক্সিজেন ক্যাম্প, ফ্রি এ্যাম্বুলেন্স ও অসহায় দুঃস্থদের জন্য করা মানবতার বাজারে হামলার অভিযোগ উঠেছে। এতে বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দলের ৫ নেতাকর্মী আহত হয়েছেন।
বুধবার সকালে নগরীর ফকিরবাড়ি রোডস্থ বাসদের কার্যালয়ে ভাড়া বিষয়ক জটিলতাকে সামনে এনে মূল ফটকে তালা ঝুলিয়ে দেয় ভাড়াটিয়া সুজিত কুমার দেবনাথ। খবর পেয়ে বাসদের শুভাকাঙ্খী নজরুল ইসলাম ঘটনাস্থলে গেলে তাকে সুজিত নিজেই মারধর করে এবং মানবতার বাজারে হামলা চালানো হয় বলে অভিযোগ করা হয়েছে। পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে গেলে বাসদ নেতাকর্মীরা এবং সুজিত কুমারের লোকজন ঘটনাস্থলে এলে দুই গ্রুপের মধ্যে মারামারির ঘটনাও ঘটে। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। এতে উভয় গ্রুপেরই ৫/৬জন আহত হয়।
বাসদ জেলা শাখার সদস্য সচিব ডাঃ মনীষা চক্রবর্তী অভিযোগ করে বলেন, ক্ষমতাসীন দলের এক নেতার মদদে আমাদের মানবিক কার্যক্রম বন্ধের জন্য এই হামলা চালানো হয়েছে। অপরদিকে মানবতার বাজার চলা স্থানের ভাড়াটিয়া দাবীদার সুজিত কুমার দেবনাথ অভিযোগ করেন যে বাসদের নেতা কর্মীরা জবর দখল করে কার্যক্রম চালাচ্ছিলো সেখানে। এদিকে এলাকাবাসীর দাবীর প্রেক্ষিতে করোনা সংক্রান্ত কার্যক্রম আবসিক এলাকা থেকে অন্যত্র সরিয়ে নেয়ার কথা বলছেন স্থানীয় জনপ্রতিনিধি। আর পুলিশ বলছে, আইন শৃঙ্খলা রক্ষায় নেয়া হবে যথাযথ ব্যবস্থা।
বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে নগরীর ফকিরবাড়ি রোডের বাসদ কার্যালয় চত্ত্বরে ঘটে এই ঘটনা।
বাড়ির ভাড়াটিয়া দাবীদার সুজিত কুমার বলেন, বাড়ির মালিক এখানে না থাকায় পুরো বাড়িটি আমি ভাড়া নেই। এর মধ্যে ডাঃ মনীষাকে বিজ্ঞান আন্দোলন মঞ্চ অফিস করার জন্য একটি কক্ষ দেয়া হয়েছিলো। এরপর সে অবৈধভাবে বিনা ভাড়ায় ওই বাড়ির মধ্যে নানা কার্যক্রম চালাচ্ছে। ভাড়া চাওয়ায় হেনস্তার অংশ হিসেবে তার বিরুদ্ধে চাঁদাবাজীর অভিযোগ করা হচ্ছে। এছাড়া পুলিশের উপস্থিতিতে আমার আত্মীয় সুভাশীষ ঘোষ বাপ্পীর উপর হামলা চালায় বাসদের নেতাকর্মীরা।
জেলা বাসদ সদস্য সচিব ডাঃ মনীষা চক্রবর্তী অভিযোগ করেন, বাড়িটির ভাড়াটিয়া দাবীদার সুজিত কুমার বাসদের শুভাকাঙ্খি নজরুল ইসলামের উপর নিজেই হামলা করেছে। তাদের করোনাকালীন নানা ধরনের সেবা কার্যক্রম বন্ধ করার চেষ্টা চলছে। বহুদিন ধরেই চক্রান্ত চলছে। এর মধ্যে সরকারি বরিশাল কলেজের নাম মহাত্মা অশ্বিনী কুমার দত্তের নামে নামকরণের দাবীতে মাঠে নামায় একটি পক্ষ বেশ ক্ষিপ্ত হয় আমাদের উপর। তারই প্রেক্ষিতে আমাদের মানবিক কার্যক্রম বন্ধ করতে উঠে পরে লেগেছে ক্ষমতাসীন দলের কিছু লোকজন। আমরা এখান থেকে প্রায় ২০ হাজার মানুষকে খাদ্য সহায়তা দিয়েছি। মানবতার বাজার খুলেছি, যাতে যার যা প্রয়োজন তা নিয়ে মানুষ উপকৃত হয়েছে। এখন আমরা বিনামূল্যে অক্সিজেন সরবরাহ এবং করোনা রোগীদের জন্য ফ্রি এ্যাম্বুলেন্স সার্ভিসের ব্যবস্থা করা হয়েছে। আমদের এই মানবিক কার্যক্রমে ঈর্ষান্বিত হয়ে আমাদের উচ্ছেদের চক্রান্তে লিপ্ত হয়েছে একটি ষড়যন্ত্রকারী চক্র।
এ ব্যাপারে স্থানীয় ১৭ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর গাজী আক্তারুজ্জামান হিরু বলেন, মনীষার কোন কার্যক্রমে সমস্যা নেই। তবে করোনা রোগী পরিবহনে এ্যাম্বুলেন্সের যাতায়াতে এলাকাবাসী ক্ষুব্ধ। তারা এই এলাকায় করোনা কার্যক্রম বন্ধের দাবী জানিয়েছেন।
বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের কোতয়ালী মডেল থানার ওসি নুরুল ইসলাম জানান, পরিস্থিতি শান্ত করতে যেটা করার প্রয়োজন আমরা করবো। এ ব্যাপারে দুই পক্ষের বক্তব্য শুনে যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার কথা বলেছে পুলিশের কর্মকর্তারা।
উল্লেখ্য, গত ৫ বছর ধরে ফকির বাড়ি রোডের প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধা হাসান ইমামের ভাড়া বাড়িতে বাসদের কার্যক্রম চলছে। একই বাড়িতে মাতৃছায়া নামে কিন্ডার গার্টেন রয়েছে। করোনাকালে স্কুল বন্ধ থাকায় স্কুল চত্ত্বরে করোনা সেবা কার্যক্রম শুরু করে বাসদ।##

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
Website Design and Developed By Engineer BD Network