২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং, রবিবার

 

নলছিটিতে গোপাল ও তার বাহিনীর কোপে সাবেক মেম্বার শেবাচিমে

আপডেট: সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২০

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

ঝালকাঠির নলছিটিতে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে মৎস্য ব্যবসায়ী ও সাবেক মেম্বার শ্যামাপ্রসাদ আশ্চর্য (কৃষ্ণ) কে কুপিয়ে রক্তাক্ত করেছে গোপাল চক্রবর্তী ও তার সহযোগী সন্ত্রাসীরা।
এ সময় সন্ত্রাসীরা কৃষ্ণের সাথে থাকা নগদ ৫০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

গত সোমবার রাত সাড়ে সাতটায় উপজেলার সিদ্ধকাঠী গ্রামের ১ নং ওয়ার্ড শহীদের চায়ের দোকানে সংলগ্ন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা আহত কৃষ্ণকে উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে গুরুতর অবস্থায় বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন।
আহত কৃষ্ণ সিদ্ধকাঠী এলাকার মৃত সুনীল কুমারের ছেলে। এবং সিদ্ধকাঠী এলাকা পরপর কয়েকবার নির্বাচিত ইউপি সদস্য।।

হামলার আঘাতে কৃষ্ণের মাথায় এবং হাতে ধারালো অস্ত্রের মারাত্মক জখম রয়েছে। তবে অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা যেতে পারে বলে জানিয়েছেন হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক।

অভিযুক্ত হামলাকারী, সিদ্ধকাঠী এলাকার মৃত হিরন কুমার চক্রবর্তীর ছেলে গোপাল চক্রবর্তী। এছাড়া আরো অজ্ঞাত নামা সহ ৫-৭ জন সন্ত্রাসী রয়েছে।

আহতের স্বজনরা জানান, দীর্ঘদিন ধরে কৃষ্ণের সাথে জমিজমা নিয়ে প্রতিবেশী গোপাল চক্রবর্তীর পূর্ব শত্রুতা চলে আসছে।

গোপাল চক্রবর্তী ও তার সহযোগী সন্ত্রাসীরা বিরোধিতার জের ধরে কৃষ্ণ ও তার পরিবারকে জুলুম অত্যাচার নিপীড়ন চালিয়ে আসছে।

তাছাড়া প্রায় সময় তুচ্ছ বিষয় নিয়ে কৃষ্ণ ও তার পরিবারকে বিভিন্ন ভয়-ভীতিসহ প্রাণনাশের হুমকি দেয় গোপাল ও তার বাহিনী।

দীর্ঘদিন ধরে কৃষ্ণের সাথে গোপালের বিরোধ থাকায় স্থানীয় গণ্যমান্য রা বিষয়টিকে সমাধা করে দিলেও গোপাল ও তাঁর সহযোগীরা তা মেনে নেয়নি। বরং পূর্বশত্রুতার বিষয়টিকে মাথায় রেখে কৃষ্ণ ও তার পরিবারকে হত্যার পরিকল্পনা করে গোপাল পরিবার। কৃষ্ণ ও গোপাল এরা সম্পর্কে পুত্রা এবং তালই,

ঘটনার দিন সোমবার রাত সাড়ে সাতটায় তুচ্ছ বিষয় নিয়ে কৃষ্ণের সাথে গোপালের দ্বন্দ্ব হয়। একপর্যায়ে গোপাল ও তার সহযোগী পরিকল্পিতভাবে হত্যার চেষ্টায় কৃষ্ণ কে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে রক্তাক্ত করে।

স্থানীয়রা কৃষ্ণকে উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন।
স্থানীয়রা অভিযোগ করেন, সিদ্ধকাঠী এলাকায় গোপাল একজন ভূমিদস্যু সন্ত্রাসী। এলাকায় সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড জমি দখলসহ অনৈতিক কর্মকাণ্ড করাই তার নেশা পেশা, কেউ গোপালের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করলে হামলা-মামলার শিকার হতে হয়।
গোপালের একটা নিজস্ব গ্যাং বাহিনী রয়েছে বলেও জানা যায়।

এদিকে ঘটনা ভিন্ন দিকে প্রবাহিত করতে গোপাল ইনজুরি দেখিয়ে নাটকীয় কায়দায় বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি হয়।

এ ব্যাপারে নলছিটি থানার অফিসার ইনচার্জ সাখাওয়াত হোসেন জানান, অভিযোগ দিলে তাৎক্ষণিক আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
Website Design and Developed By Engineer BD Network