৩০শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, শুক্রবার

 

বিদ্যুৎ বিভ্রাটে শেবাচিম হাসপাতালের রোগীদের দুর্ভোগ

আপডেট: অক্টোবর ৩, ২০২০

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

বিদ্যুৎ বিভ্রাটের কবলে শণিবার দিভরই দক্ষিণাঞ্চলের প্রধান সরকারী চিকিৎসা সেবা প্রতিষ্ঠান শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সার্বিক কার্যক্রম বিপর্র্যস্ত হয়ে পড়ে।

সকাল থেকে দফায় দফায় বিদ্যুৎ সরবারহ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় এক হাজার শয্যার এ হাসপাতালের চিকিৎসা কার্যক্রম মারাত্মকভাবে বিঘিœত হয়।

এমনকি বহির্বিভাগের চিকিৎসা সেবা সহ পুরো হাসপাতালের অস্ত্রোপচার কার্যক্রমও বন্ধ ছিল।

বিদ্যুৎ বিভ্রাটে হাসপাতালটির বহি:বিভাগে চিকিৎসকরা সকাল থেকে রোগী দেখা বন্ধ রাখায় চিকিৎসা সেবা নিতে আসা রোগীরা চরমবিপাকেপড়েন।

এমনকি সব ধরনের পরীক্ষা-নিরীক্ষাও অনেকাংশে বন্ধ ছিল।

দুপুর ৩টা পর্যন্ত শত শত রোগী বহি:বিভাগে চিকিৎসা সেবা না পেয়ে ফিরে গেছেন।

একই চিত্র দেখা গেছে হাসপাতালের আন্ত:বিভাগের অধিকাংশ ওয়ার্ডে।

বিদ্যুৎ না থাকায় পুরো হাসপাতালণ যুড়ে পানি সরবরাহও বন্ধ ছিল।

হাসপাতালের পরিচালক ডা: বাকির হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, শনিবার সকাল থেকে বিদ্যুৎ কেবল যায় আর আসে।

এতে রোগীদের অস্ত্রোপচারে বিঘœ ঘটছে।

পরীক্ষা নিরীক্ষা করা যাচ্ছে না।

হাসপাতালে প্রায়শই এমনটা হচ্ছে।

বিদ্যুৎ বিভাগ কেন হাসপাতাল এলাকায় এমন বিভ্রাট ঘটাচ্ছে তা জানতে চাওয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।

এ ব্যাপারে বরিশাল বিদ্যুৎ বিক্রয় ও বিতরন কেন্দ্র-১ নির্বাহী প্রকৌশলী আমজাদ হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, ‘ সঞ্চালন লাইনে পাখি পড়ে বিদ্যুতের তার ছিঁড়ে যাওয়ায় শনিবার বিদ্যুৎ সরবরাহ কিছুক্ষণ বন্ধ ছিল।

এ বিষয়ে হাসপাতালের পরিচালকের সঙ্গে তার কয়েকবার কথা হয়েছে বলেও জানান নির্বাহী প্রকৌশলী।’

তিনি বলেন, ‘অভিযোগ করা রোগীদের অভ্যাস।

একটু বিদ্যুৎ গেলেই হাউকাউ করে তারা।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
Website Design and Developed By Engineer BD Network