২৮শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার

 

বরিশালবাসী করোনা পরীক্ষা নিয়ে বিপাকে

আপডেট: ডিসেম্বর ৬, ২০২০

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক‌্যাল কলেজের পর এবার ভোলা সদর হাসপাতালের করোনা নমুনা মেশিনে ত্রুটির কারণে পরীক্ষা বন্ধ রয়েছে। এ বিভাগে মাত্র দুটি আরটি-পিসিআর ল্যাব। দুটোরই কার্যক্রম বন্ধ হয়ে গেছে। এখন করোনা পরীক্ষা নিয়ে চরম বিপাকে পড়েছেন বরিশালবাসী।

শনিবার (৫ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় ভোলা সিভিল সার্জনের আওতাধীন আরিটি পিসিআর ল্যাবের একমাত্র মেশিনটি বিকল হয়ে যায়।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বরিশালের সিভিল সার্জন ডা. মো. মনোয়ার হোসেন।

তিনি বলেন, ‘দেশে করোনা প্রবেশের প্রথম পর্যায়ে আমরা নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকার বিভিন্ন ল্যাবে পাঠাতাম। এতে করে পরীক্ষার ফলাফল আমাদের কাছে আসতে ৪ থেকে ৫ দিন সময় লাগতো। এরপর বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিক‌্যাল কলেজে চলতি বছরের ৯ এপ্রিল থেকে পিসিআর ল্যাবে করোনার নমুনা কার্যক্রম শুরু হয়। এতে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে ফলাফল পেতাম। কিন্তু বৃহস্পতিবার (৩ ডিসেম্বর) এই ল্যাবের মেশিনটি নষ্ট হয়ে যায়। তখন ভোলা সিভিল সার্জনের আওতাধীন পিসিআর ল্যাবে নমুনা প্রেরণ পাঠানো শুরু করি। দুদিন পর শনিবার (৫ ডিসেম্বর) সন্ধ্যার পর ওই মেশিনটিও নষ্ট হয়ে গেছে। মেশিনগুলো সচল হতে আরও ৮ থেকে ১০ দিন সময় লাগবে।’

সিভিল সার্জন ডা. মনোয়ার হোসেন আরও বলেন, ‘আজ থেকে নমুনা সংগ্রহ করে আগের মতো ঢাকার বিভিন্ন ল্যাবে পাঠানো শুরু করেছি। এসব নমুনা পরীক্ষার ফলাফল পেতে অনেক সময় লাগবে। এ কারণে আমরা স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তাসহ বরিশালের মানুষ চরম বিপাকে আছি।’

বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক‌্যাল কলেজের আরটি পিসিআর ল্যাবের প্রধান ও ভাইরোলজি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. মো. আকবর হোসেন জানান, গত বৃহস্পতিবার পিসিআর ল্যাবে ৯৪টি নমুনা পরীক্ষার পর মেশিনে ত্রুটি দেখা দেয়। এরপর থেকে করোনা পরীক্ষা বন্ধ রয়েছে। সাথে সাথে বিষয়টি ঢাকায় সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়।

তিনি বলেন, ‘শুক্রবার (৪ ডিসেম্বর) ঢাকা থেকে প্রকৌশলীরা বরিশালে এসে বিকল যন্ত্রপাতি মেরামতের জন্য ঢাকায় পাঠানোর পরামর্শ দেন। আজ সকালে মেশিন ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। মেশিনটি মেরামতে আগামী ৭ থেকে ১০ দিন সময় লাগতে পারে।’

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
 
Website Design and Developed By Engineer BD Network