১০ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার

 

শ্রাবন্তী ও নুসরাতের বিবাহবিচ্ছেদ

আপডেট: এপ্রিল ৩, ২০২১

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

দীর্ঘ দিন ধরে এক ছাদের নিচে থাকেন না শ্রাবন্তী-রোশন ও নুসারত-নিখিল দম্পতি। কিন্তু কোনো দম্পতিরই বিবাহবিচ্ছেদ হয়নি। তবে দুজনই তাদের স্ত্রীকে তালাক দেওয়ার আশায় দিন গুণছেন।

এ নিয়ে নতুন করে আবার গণমাধ্যমে মুখ খুললেন রোশন আর নিখিল।

দীর্ঘদিন ধরেই আলাদা থাকছেন শ্রাবন্তী ও রোশন। এর মধ্যে শ্রাবন্তীর নতুন সম্পর্কে জড়িছেন বলে গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে। এ নিয়ে নিয়ে বিব্রত রওশন।

অন্যদিকে নুসরাত-নিখিলও অনেক দিন ধরে এক ছাদের নিচে থাকেন না। পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভার নির্বাচনের পর নসুরাতকে বিচ্ছেদ দেওয়ার আশায় দিন গুণছেন নিখিল।

আনন্দবাজার জানিয়েছে, গত বছর পূজার পর থেকে আলাদা থাকছেন রোশন এবং শ্রাবন্তী। আইনি পদ্ধতিতে বিচ্ছেদ না হলেও একে অন্যের সঙ্গে কোনো যোগাযোগ নেই।

এর মধ্যেই শ্রাবন্তী বিজেপির রাজনীতিতে যোগদান করেছেন। বিধানসভায় প্রার্থী হওয়ায় স্ত্রীকে সৌজন্যমূলক শুভেচ্ছা জানিয়েছিলেন রোশন।

অন্যদিকে নুসরাত এখন বাবা-মা আর বোনের সঙ্গে বালিগঞ্জে থাকেন। অভিনেতা যশের সঙ্গে তারও প্রেমের গুঞ্জন চলছেন। এবারও নির্বাচনে দাঁড়িয়েছেন নুসরাত।

এই প্রসঙ্গে রোশন বলেন, ‘নির্বাচনের আগে কিছুই হবে না। তবে দুবছর আগে শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায় নামে একটা মেয়েকে আমি বিয়ে করেছিলাম। কিন্তু আজ রাস্তায় ওকে দেখলে আমি চিনতেই পারব না। ওর মুখটা আমি ভুলে গিয়েছি।’

কিছুদিন আগে নিখিল জানিয়েছিলেন, তার আর নুসরতের বিবাহবিচ্ছেদ নিয়ে তিনি মুখ খুলবেন না। সেই প্রসঙ্গ ওঠায় তিনি বলেন, ‘যেদিন বিবাহবিচ্ছেদ হবে, সে দিন আমি ঠিক জানিয়ে দেব। এখনও সেই সময় আসেনি।’

অর্থাৎ বিবাহবিচ্ছেদের সম্ভাবনাকে তিনি নস্যাৎ করেননি। বরং ইঙ্গিতে বুঝিয়েছিলেন, ২০২১-এর নির্বাচনের আগে এই নিয়ে কোনো মন্তব্য করা ঠিক হবে না।

রোশনও জানান, বিরূপ কোনো মন্তব্য করলে বা তিনি যা বলতে চাইছিলেন সেটা এই মুহূর্তে বললে, মানহানির মামলা পর্যন্ত হতে পারে।

ফলে নিখিল এবং রোশন দুজনই নির্বাচনের ফলফল ঘোষণার অপেক্ষায়। পশ্চিমবঙ্গের রাজ্য রাজনীতিতে যুদ্ধ চলছে ক্ষমতা দখলের। অন্য দিকে তাদের বৈবাহিক জীবন দখলদারি ছেড়ে মুক্তি চাইছে।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
 
Website Design and Developed By Engineer BD Network