৮ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার

শিরোনাম
সুগন্ধা নদীর ভাঙ্গন প্রতিরোধে চলমান প্রকল্প পরিদর্শন করলেন পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী বরিশালে দেড় হাজার কর্মহীনদের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা সামগ্রী বিতরণ আমতলীর বারী মুগডাল-৬ জাপানে রপ্তানী বন্ধ কুয়াকাটার ধুলাসার ইউপি চেয়ারম্যান : মসজিদের টাকায় পারিবারিক কবরস্থান নির্মাণ ডিআরইউ’র সদস্যদের জন্য স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী প্রদান স্বেচ্ছাসেবক লীগের কুয়াকাটায় মানবেতর জীবনযাপন করছে কয়েক হাজার হোটেল কর্মচারী ঝিনাইদহে টাকা আদায় করতে যুবককে মারধর, মিথ্যা মামলায় বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা! ৬ মে থেকে চলবে বাস-লঞ্চ : জেলার মধ্যে ভোলায় ট্রাকের ধাক্কায় পুলিশের এ এসআই আকলিমা নিহত

বামনায় ৩০ শয্যা হাসপাতালে ১৫০জনই ডাইরিয়ার রোগী

আপডেট: এপ্রিল ২৪, ২০২১

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

মাসুদ রেজা ফয়সাল
বামনা সংবাদদাতা

বরগুনার বামনায় মহামারী আকার ধারণ করেছে ডায়রিয়া। উপজেলার ৩০শয্যা বিশিষ্ঠ হাসপাতালে ডায়রিয়া রোগীই ভর্তি আছে ১৫০ জন। এছাড়া প্রতিটা গ্রামেই ৮-১০জন ডায়রিয়া রোগী আক্রান্ত হয়ে বাড়ীতে বসে চিকিৎসা নিচ্ছেন বলে জানাযায়। আজ শনিবার বামনা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে দেখা যায় সিট, ফ্লর, মেঝ, বারান্দা ও সিড়িতেই চিকিৎসা নিচ্ছেন ডায়রিয়ার রোগীরা। চিকিৎসক, নার্স ও সংশ্লিষ্ঠ স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন দিনরাত চিকিৎসা সেবা দিয়ে যাচ্ছে। এ দিকে আজ শনিবার বিদ্যুৎ না থাকায় নানাবিধ দূর্ভোগে পড়েছে রোগী ও স্বজনরা। পুশ স্যালাইনের রয়েছে ব্যাপক সল্পতা। আজ উপজেলা যুবলীগের নেতৃবৃন্দ ৫০টি পুশ স্যালাইন প্রদান করেছে বামনা স্বাস্থ্য বিভাগের কাছে। দুই একদিন আগে সরকারীভাবে ১০০০টি পুশ স্যালাইন পাওয়া গিয়েছে। তাও শেষের পথে।
আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ রিযাজুল ইসলাম জানান, আমরা ডাক্তার ও নার্সরা ডাবল শিফট ডিউটি করেও কোন ক্রমেই নিয়ন্ত্রনে আনতে পারতেছিনা মহামারী ডায়রিয়া। সুশীল সমাজ, ছুটিতে থাকা অধ্যায়নরত চিকিৎসক ও সেবিকাদের সহযোগীতা চাই।

উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ মনিরুজ্জামান জানান, আমাদের যথেষ্ট জনবলের সংকট রয়েছে তারপরও আমরা আপ্রাণ চেষ্টা করে চিকিৎসা চালিয়ে যাচ্ছি। আল্লাহর কাছে শুকরিয়া এখন পর্যন্ত কোন দুঃসংবাদ ছাড়াই ২২৭জন ডায়রিয়ার রোগী সুস্থ্য হয়ে বাড়ী ফিরেছেন। আজ থেকে আমি স্বাস্থ্য কর্মীদেরকেও ডায়রিয়া রোগীদের সেবা দেওয়ার জন্য নিয়োজিত করেছি। মাননীয় সংসদ সদস্য ও আমার উর্দ্ধতন দপ্তরের সাথে অব্যহত যোগাযোগ রেখেছি ও স্যালাইনের ব্যবস্থা করছি।

নদী নালা খাল বিল ও পুকুরের পানি বর্জণ করে সকল কাজেই আমরা টিউবয়েলের পানি ব্যবহার করি এবং বাসি পঁচা ভাজা পোড়া খাবার গ্রহণ থেকে বিড়ত থাকি। তাহলেই এ মহামারী ডায়রিয়া থেকে আল্লাহ আমাদের রক্ষা করবেন।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
 
Website Design and Developed By Engineer BD Network