১০ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার

শিরোনাম
কুয়াকাটার সৈকতে ভেসে এসেছে বিশাল এক মৃত ডলফিন গ্রাম পুলিশ হত্যাকান্ডের পর অসহায় পরিবারের পাশে নেই প্রশাসন পাল্টে যাচেছ চরফ্যাশনের গ্রামীণ জনপদ : সন্ধ্যা নামলেই সৌর বাতি সুগন্ধা নদীর ভাঙ্গন প্রতিরোধে চলমান প্রকল্প পরিদর্শন করলেন পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী বরিশালে দেড় হাজার কর্মহীনদের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা সামগ্রী বিতরণ আমতলীর বারী মুগডাল-৬ জাপানে রপ্তানী বন্ধ কুয়াকাটার ধুলাসার ইউপি চেয়ারম্যান : মসজিদের টাকায় পারিবারিক কবরস্থান নির্মাণ ডিআরইউ’র সদস্যদের জন্য স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী প্রদান স্বেচ্ছাসেবক লীগের কুয়াকাটায় মানবেতর জীবনযাপন করছে কয়েক হাজার হোটেল কর্মচারী

বেতাগীতে ফসলি জমির মাটি কেটে খাল,রাতের আঁধারেই দখল!

আপডেট: মে ৩, ২০২১

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

বেতাগী(বরগুনা)প্রতিনিধি:
বরগুনার বেতাগীতে রাতের আধারে দুর্বৃত্তদের ক্ষমতার জেরে ফসলে পরিপূর্ণ জমির মাটি কেটে খালে পরিনত করে জমি দখলের অভিযোগ উঠেছে। উপজেলার হোসনাবাদ ইউনিয়নের আনর জলিশা গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে। প্রায় ৪ একর জমিতে দুর্বৃত্তরা মাটি খনন করে দখল করে নেন।
ভুক্তভোগী ও এলাকাসূত্রে জানা যায়,একই এলাকার বাসিন্দা মৃত মোস্তফা ফকিরের ছেলে মো. মফিজুলের সাথে ওই এলাকার বাসিন্দা খলিল মাতুব্বর ,জলিল ,রুহুল,ফারুখ সরদার প্রমূখ এদের সাথে পুরানো শত্রুতা ছিলো সেই জের ধরে বুধবার ও রবিবার গভির রাতে ভুক্তভোগীদের কেউ বাড়িতে না থাকার সুযোগে প্রায় ৪০জন লোক নিয়ে ফসলে ভরা জমির মাটি কেটে খালে পরিনত করে অবৈধভাবে দখল করে নিয়েছে।
স্থানীয় বাসিন্দা মো. মজিবুর রহমান বলেন, আমাদের ছোটবেলা থেকে দেখে আসছি ওই জমি মফিজুলের বাবা ভোগদখল করে আসছে। হঠাৎ তার ও তার স্ত্রীর মৃত্যুর পরপরই এলাকার কিছু ভুমিদুস্য ক্ষমতার জোরে জমিগুলো দখল করে নিচ্ছে। তাদেরকে ডেকে জিজ্ঞেস করার মতো কেউ নেই।
ভুক্তভোগী মফিজুল বলেন, হোসনাবাদ মৌজায় এসএ ২২০/২২১ নং খতিয়ানের ৪৬৪১/৪৬৭০-৭২,৮০,৮৪,৮৭,৯০,৯২,৯৩,৯৮ সহ বেশ কয়েকটি দাগে আমার ভোগদখলীয় সম্পত্তি। আমার মায়ের মৃত্যুর পর আমরা ছারা ওই জমির অন্য কোন ওয়ারিশ নাই তার সনদপত্র থাকা সত্তে¡ও এলাকার ওই ওলোকজন আমার জমি রাতের আধারে দখল করেছেন। এছাড়াও এই জমি নিয়ে ২০০৪ সালে দেওয়ানী মামলা হয় যার রায় আমাদেও পক্ষে আমরা পাই মামলা নং-৫১৯/০৪ এবং আমার নানা ধরনের ফসল নষ্ট করেছে। আরো বলেন, থানায় অভিযোগ দেইনি কারন পুলিশ আসলে তারা ম্যানেজ করে ফেলে। অফিস আদালত খুললে কোর্টে মামলা করবো।
স্থানীয় ইউপি সদস্য আনোয়ার হোসেন মন্টু বলেন, রাতের আধারেই জমি দখল করে ফসল নষ্ট করেছে এবং খাল বানিয়েছে কথাটি সত্য আমি প্রমানও পেয়েছি । তবে তারা সালিসি ব্যবস্থা না মানায় এখনো কোন সমাধান দতে পারিনি।
অভিযুক্ত একাধিক ব্যাক্তির সাথে কথা বললে তাদের মধ্যে খলিল মাতুব্বর বলেন, এই জমিটি ওয়াকফ ষ্টেটের জমি এবং আমি নিজেই এই জমির মালিক। আমি আইন কানুন মানিনা। এখন জমি কেটে খাল বানাইছি পরে নদি বানাবো।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
 
Website Design and Developed By Engineer BD Network