৩০শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শুক্রবার

পরিকল্পনামন্ত্রীর ছিনতাই হওয়া মুঠোফোন উদ্ধার

আপডেট: জুলাই ১৯, ২০২১

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

ডেস্ক রিপোর্ট:
পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নানের ছিনতাই হওয়া আইফোন উদ্ধার করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) রমনা বিভাগ। ডিএমপির জনসংযোগ শাখার অতিরিক্ত উপকমিশনার (এডিসি) ইফতেখারুল ইসলাম আজ সোমবার এ তথ্য জানিয়েছেন।

আজ সোমবার দুপুরে ডিএমপি মিডিয়া সেন্টার আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে রমনা বিভাগের উপকমিশনার (ডিসি) সাজ্জাদুর রহমান জানান, গতকাল রোববার রাতের ধারাবাহিক অভিযানে রাজধানীর বিভিন্ন স্থান থেকে ছিনতাই চক্রের পাঁচ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

গ্রেপ্তার করা ব্যক্তিরা হলো—মো. সগির, মো. সুমন মিয়া, মো. জাকির, মো. হামিদ আহম্মেদ সোহাগ আরিফ ও মো. জীবন। গ্রেপ্তারের সময় তাদের কাছ থেকে থেকে একটি মোটরসাইকেল, বিভিন্ন মডেলের ১০টি ফোন, একটি ল্যাপটপ এবং মোবাইলের বিভিন্ন যন্ত্রাংশ উদ্ধার করা হয়।

ডিসি সাজ্জাদুর রহমান বলেন, ‘রমনা বিভাগের ধানমন্ডি থানা পুলিশ বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে মন্ত্রীর চুরি যাওয়া মোবাইলসহ পাঁচ জনকে গ্রেপ্তার করেছে।’

সাজ্জাদুর রহমান জানান, ধানমন্ডি থানার একটি মামলার ভুক্তভোগী গত ১২ জুন বিকেলে রিকশায় করে যাওয়ার সময় মোটরসাইকেলে থাকা অজ্ঞাতনামা দুজন ব্যক্তি তাঁর ভ্যানিটি ব্যাগ টান দিয়ে নিয়ে যায়। এরপর সিসিটিভির ফুটেজ সংগ্রহ করে মো. সগির ও সুমন মিয়াকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরবর্তীকালে তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে অপর আসামিদের গ্রেপ্তার করা হয়। তাদের কাছ থেকে ওই ভুক্তভোগীর মোবাইলফোনসহ পরিকল্পনামন্ত্রীর ছিনতাই হওয়া আইফোনটি উদ্ধার করা হয় বলে জানান ডিসি সাজ্জাদুর।

এর আগে গত ৩০ মে পরিকল্পনা কমিশন থেকে বের হয়ে নিজের মুঠোফোনে কথা বলতে বলতে বিজয় সরণির দিকে যাচ্ছিলেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। ওই সময় গাড়ির জানালা খোলা ছিল। হঠাৎ এক ছিনতাইকারী পরিকল্পনামন্ত্রীর মুঠোফোনটি ছিনিয়ে নিয়ে দৌড়ে পালায়। তদন্তের পর ওই ছিনতাইকারীকে শনাক্ত করা গেছে বলে জানিয়েছিল পুলিশ।

পুলিশের মিরপুর বিভাগের উপকমিশনার আ স ম মাহতাব উদ্দিন বলেছিলেন, ‘মন্ত্রী মহোদয়ের মোবাইল ফোনটি একজন হেরোইনসেবী ছিনতাই করেছে। প্রথমে সে বুঝতে পারেনি যে, মন্ত্রীর মোবাইল ফোন ছিনতাই করেছে। পরে যখন বুঝতে পেরেছে তখন গা-ঢাকা দিয়েছে। ছিনতাইকারীকে চিহ্নিত করা গেছে। তার নাম-ঠিকানাসহ বিস্তারিত তথ্য পাওয়া গেছে। ওই ছিনতাইকারী রাস্তার মুখে স্থাপিত উড়োজাহাজের ভাস্কর্যের নিচে ঘুমাত। তাকে ধরতে অভিযান চলছে। আমরা তাকে দ্রুতই ধরে ফেলব বলে আশা করছি। সে মূলত ছিনতাই করে আর নেশা করে।’

এ ঘটনার পর গত ১ জুন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নানের ব্যক্তিগত সহকারী কাফরুল থানায় একটি মামলা করেন। মামলার বরাত দিয়ে পুলিশ জানিয়েছিল, নভোথিয়েটারের উল্টো পাশ থেকে ছিনতাইকারী মুঠোফোনটি নিয়ে তেজগাঁওয়ের দিকে চলে যায়। সে সময় টিপটিপ বৃষ্টিও হচ্ছিল। সন্ধ্যা বলে অন্ধকারও ছিল। পরে পুলিশ জানিয়েছিল, ফোনটি ছিনতাইয়ের পর কয়েক দফা হাত বদল হয়ে হাতিরপুলের একটি দোকানে গিয়েছিল। সে দোকান থেকে একজন ক্রেতা ফোনটি ৩৫ হাজার টাকায় কিনে নেন বলে জানায় পুলিশ।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
   
Website Design and Developed By Engineer BD Network