৭ই সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার

তাহিরপুর থানা এলাকায় বিধবা নারী ভিক্ষুককে গণ ধর্ষণের ঘটনায় মামলা দায়ের

আপডেট: সেপ্টেম্বর ৫, ২০২১

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক:
বিধবা নারী ভিক্ষুককে সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে বিধবা নারী ভিক্ষুককে গণ ধর্ষণের ঘটনায় দুই ধর্ষকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।
শনিবার গভীর রাতে উপজেলার উওর বাদাঘাট ইউনিয়নের মোল্লাপাড়া গ্রামের মৃত কালা মিয়ার ছেলে আজিজুল আজিজুল ইসলাম (৪০) ও একই গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে সাইফুল ইসলাম (২৭)’কে অভিযুক্ত করে ওই মামলাটি দায়ের করা হয়।
প্রসঙ্গত, ভাড়ায় থাকা বাসার দরজা ভেঙ্গে ঘুমন্ত শিশুকে পাশে রেখে বিধবা নারী ভিক্ষুককে রাতভর পালাক্রমে গণধর্ষণ করে ফেলে রেখে যায় দুই ধর্ষক।
সুনামগঞ্জের তাহিরপুর থানার বাদাঘাট পুলিশ ফাঁড়ি নিয়ন্ত্রিত কামড়াবন্দ এলাকায় গত বৃহস্পতিবার রাতে ওই গণ ধর্ষণের ঘটনা ঘটে।
মামলা ও ভিকটিমের পারিবারিক সূত্র জানায়, উপজেলার দক্ষিণ বড়দল ইউনিয়নের কাউকান্দি চতুর্ভুজ গ্রামের বিধবা নারী (৩৫) ছয় বছর বয়সি শিশুসন্তাকে নিয়ে ভিক্ষা করে সংসার চালান। বর্ষা মৌসুম হওয়ায় হাওর তীরে গ্রামের বাড়িতে যাতায়াতে ঝুঁকির কারণে উপজেলার উত্তর বাদাঘাট ইউনিয়নের কামড়াবন্দ গ্রামে বাসা ভাড়া নেন তিনি। সেখানে বৃহস্পতিবার রাত ২টা থেকে সোয়া ২টার মধ্যে উপজেলার মোল্লাপাড়া গ্রামের দুই ব্যক্তি দরজা ভেঙে বাসায় ঢুকে ওই নারীকে ধর্ষণ করে।
ঘটনার পরপরই বৃহস্পতিবার ভোররাতে ও পরদিন শুক্রবার প্রতিবেশী ও এলাকার মুরব্বিদের বিষয়টি জানানোর পর থানায় অভিযোগ না করার জন্য ভিকটিমকে ভয় দেখায় অভিযুক্তরা।
পরে শনিবার থানা পুলিশকে গণধর্ষণের বিষয়ে ভিকিটিম লিখিত অভিযাগ করেন।
রোববার তাহিরপুর থানার ওসি (তদন্ত) মো. শফিকুল ইসলাম এ তথ্য জানিয়ে বলেন, ভিকটিম বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেছেন।।,
সিলেট-০৫.০৯.২১

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
   
Website Design and Developed By Engineer BD Network