৯ই সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার

নিষিদ্ধ হচ্ছে আফগান নারী ক্রিকেট

আপডেট: সেপ্টেম্বর ৯, ২০২১

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

আফগানিস্তানে তালেবান সরকারের অধীনে নারীদের জন্য খেলাধুলা বিশেষ করে ক্রিকেট নিষিদ্ধ করা হবে। এমনকি জাতীয় নারী ক্রিকেট দলকেও নিষিদ্ধ করা হবে বলে জানিয়েছেন তালেবানের এক কর্মকর্তা। বুধবার ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ানের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

তালেবানের কালচারাল কমিশনের ডেপুটি প্রধান আহমাদুল্লাহ ওয়াসিক জানিয়েছেন, নারীদের খেলাধুলার কোনো প্রয়োজনীয়তা নেই। নারীদের ক্রিকেট খেলার কোনো অনুমোদন দেওয়া হবে না, তাদের ক্রিকেট খেলা উচিতও নয়।

আহমাদুল্লাহ ওয়াসিক জানিয়েছেন, ক্রিকেটের মতো খেলাধুলায় নারীদের শরীর ও মুখমণ্ডল ঢেকে রাখা সম্ভব নয়। ইসলাম নারীদের এ ধরনের খেলাধুলায় অনুমোদন দেয় না।

তিনি বলেন, মিডিয়ার এমন যুগে খেলাধুলার সব ছবি ও ভিডিও মানুষ সরাসরি দেখতে পারে। যে সব খেলাধুলার মাধ্যমে নারীদের শরীর ঢেকে রাখা সম্ভব নয় সে সব খেলাধুলার অনুমোদন ইসলাম দেয় না, আফগানিস্তানও দেবে না।

আহমাদুল্লাহ ওয়াসিক বলেন, ‘আমি মনে করি না যে নারীদের ক্রিকেট খেলার অনুমতি দেওয়া হবে। কারণ এটা প্রয়োজনীয় নয় যে, নারীদের ক্রিকেট খেলা উচিত। ক্রিকেটে, তারা এমন পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে পারে যেখানে তাদের মুখ এবং শরীর আবৃত থাকবে না। ইসলাম নারীদের এভাবে দেখার অনুমতিও দেয় না।’

এদিকে গতকাল মঙ্গলবার (৭ সেপ্টেম্বর) আফগানিস্তানে নতুন তত্ত্বাবধায়ক সরকারের নাম ঘোষণা করে তালেবান। এর প্রধান হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে স্বল্পপরিচিত নেতা মোহাম্মদ হাসান আখুন্দকে। তার ডেপুটি হিসেবে রয়েছেন সশস্ত্র এই গোষ্ঠীর সহ-প্রতিষ্ঠাতা আব্দুল গানি বারাদার।

হাক্কানি নেটওয়ার্কের বর্তমান প্রধান সিরাজউদ্দিন হাক্কানিকে করা হয়েছে ভারপ্রাপ্ত স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। তালেবানের প্রতিষ্ঠাতা মোল্লা ওমরের ছেলে মোল্লা মোহাম্মদ ইয়াকুবকে করা হয়েছে প্রতিরক্ষামন্ত্রী। অর্থমন্ত্রী হয়েছেন হেদায়েতুল্লাহ বদরী। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পেয়েছেন আমির খান মুত্তাকি।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
   
Website Design and Developed By Engineer BD Network