২১শে নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, রবিবার

ওবায়দুল কাদেরের স্বাক্ষর জাল করার অভিযোগে দিনাজপুর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সোহাগ ​জেল হাজতে

আপডেট: অক্টোবর ২৪, ২০২১

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

রফিকুল ইসলাম ফুলাল দিনাজপুর প্রতিনিধি :
জালিয়াতির মামলায় জেল হাজতে দিনাজপুর সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম সোহাগ (৩৫)। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের স্বাক্ষর ও সীল জাল করার অভিযোগে দায়েরকৃত মামলায় বিচারক জেল হাজতে প্রেরণ করেছেন তাকে।

আজ রোববার বিকেল ৪টায় আদালতে হাজিরা দিতে গেলে দিনাজপুর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. ইসমাইল হোসেন উচ্চতর আদালতের আদেশ অনুযায়ী তদন্ত রিপোর্ট দাখিল পর্যন্ত অস্থায়ী জামিনে থাকায় তার জামিন বাতিল করে তাকে জেল হাজতে প্রেরণের আদেশ দেন।

দিনাজপুর কোর্ট পুলিশ পরিদর্শক মো. মনিরুজ্জামান আজ রোববার বিকাল ৪টায় জানান, নির্ধারিত মামলার তারিখে এই চাঞ্চল্যকর মামলার আসামী দিনাজপুর সদর উপজেলার দক্ষিণ ফরিদপুর গ্রামের মো. জাবেদ আলীর পুত্র সদর উপজেলা পরিষদে নির্বাচিত ভাইস চেয়ারম্যান মো. রবিউল ইসলাম সোহাগ (৩৫) আদালতে হাজিরা প্রদান করেন। বিচারক তার বিরুদ্ধে পুলিশের মামলা তদন্ত রিপোর্ট পর্যালোচনার পর তার জামিন বাতিল করে জেল হাজতে প্রেরণের আদেশ দেন।

তিনি জানান, রবিউল ইসলাম সোহাগ এই মামলায় ইতিপূর্বে উচ্চতর আদালত হাইকোর্ট থেকে মামলার তদন্ত রিপোর্ট দাখিল পর্যন্ত অস্থায়ী জামিনে মুক্ত ছিল। মামলা তদন্তকারী কর্মকর্তা কোতয়ালী থানার পরিদর্শক (অপারেশন) মো. মাহবুবুর রহমান সরকার মামলাটি তদন্ত করে গত ৯ ফেব্রুয়ারি আদালতে পৃথক ২টি অভিযোগপত্র দাখিল করেন। তদন্তকারী কর্মকর্তা তার দাখিলকৃত ২টি অভিযোগপত্রে প্রকাশ করেছেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক জনপথ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের সীল সাক্ষর জাল করে নিজেকে দিনাজপুর জেলা আওয়ামী লীগের শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক হিসেবে ফেসবুকে প্রকাশ করায় তার বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ও নিয়মিত আইনে পৃথক দুটি অপরাধ সংগঠিত করেছে বলে উল্লেখ করা হয়। ফলে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে এবং নিয়মিত আইনে পৃথক দুটি অভিযোগপত্র তদন্তকারী কর্মকর্তা আদালতে দাখিল করেন। দীর্ঘ সময় দেশব্যাপী করোনা ভাইসে মহামারী থাকায় আদালতের কার্যক্রম স্থগিত থাকার কারনে মামলাটির অভিযোগপত্র গ্রহণ বিষয় শুনানি আজ রোববার অনুষ্ঠিত হয়। শুনানি শেষে বিচারক সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. ইসমাইল হোসেন উচ্চতর আদালতের আদেশ অনুযায়ী তদন্ত রিপোর্ট দাখিল পর্যন্ত অস্থায়ী জামিনে থাকায় তার জামিন বাতিল করে তাকে জেল হাজতে প্রেরণের আদেশ দেন।

পুলিশের সূত্রটি জানায়, আজ রোববার বিকাল ৫টায় রবিউল ইসলাম সোহাগকে কড়া পুলিশ পাহারায় আদালত থেকে জেল কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, রবিউল ইসলাম সোহাগ কর্তৃক কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগে সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এর স্বাক্ষর, সীল জাল করা ও ফেসবুকে তার ভুয়া জেলা আওয়ামী লীগের শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদকের পদ প্রচার করার অভিযোগে দিনাজপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আজিজুল ইমাম চৌধুরী বাদী হয়ে গত বছর ৮ অক্টোবর কোতয়ালী থানায় একটি মামলা দায়ের করে। ওই মামলার তদন্ত শেষে রবিউল ইসলাম সোহাগের বিরুদ্ধে পুলিম পৃথক দুটি অভিযোগপত্র দাখিল করলে তাকে বিচারক জেল হাজতে প্রেরন করেন।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
   
Website Design and Developed By Engineer BD Network