২২শে নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার

বরিশালে ‘হা-শো’র অডিশন রাউন্ড অনুষ্ঠিত

আপডেট: নভেম্বর ২১, ২০২১

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক : বরিশালে ব্যাপক আয়োজনের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে টেলিভিশন চ্যানেল এনটিভি’র জনপ্রিয় রিয়েলিটি শো মার্সেল প্রেজেন্টস ‘হা-শো’র সিজন-৬ অডিশন।

বিভাগীয় শহর বরিশাল ছাড়াও দেশের দখিনের উপক‚লীয় অঞ্চল ঝালকাঠী, ভোলা, পটুয়াখালী, বরগুনা ও পিরোজপুরের প্রত্যান্ত গ্রাম থেকে এ অডিশনে অংশ নিতে ছুটে এসেছেন অশংখ্য প্রতিযোগী।

আজ রোববার সকালে বরিশাল নগরীর শিল্পকলা একাডেমিতে হালকা শীতল বাতাস আর বেলা বারার সাথে সাথে প্রখর রোদ উপেক্ষা করে তারা দাড়িয়ে ছিলো দীর্ঘ লাইনে।

সেখানে সকাল ১০ টা থেকে দুপুর পর্যন্ত প্রতিযোগীদের উপস্থিতি রেজিষ্ট্রেশন চলে। পরে দুপুর ১টার পর অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত হয় ‘হা-শো’র সিজন-৬ অডিশন। চলবে রাত পযন্ত।

অডিশন রাউন্ডের শুরুতে প্রতিযোগীদের স্বাগত জানিয়ে বক্তব্য রাখেন হা-শো’র যৌথ পরিচালক জাহাঙ্গীর চৌধূরী ও কাজী মোস্তফা।

অডিশনে বিচারক প্যানেলে দায়িত্বে ছিলেন স্ট্যান্ড আপ কমেডিয়ান ইসতিয়াক নাসির, হা-শো সীজন ১ চ্যাম্পিয়ন সাইফুর রহমান সাইফুল ও অভিনেত্রী নাবিলা বিনতে হাসান।

ইতোমধ্যে রংপুর, রাজশাহী, চট্টগ্রাম ও ঢাকা বিভাগের অডিশন পর্ব শেষ হয়েছে। অডিশন থেকে বিচারকদের বিচারে উঠে আসবে সেরা প্রতিযোগীরা। তাদের নিয়েই শুরু হবে ‘মার্সেল হা-শো’র মূল অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন তৌহিদ ও তাসনিয়া তাহসিন জেনি।

বরিশালে কোন অত্মিয়-স্বজন না থাকায় অডিশন শিল্পকলা একাডেমির বারান্দাতেই তিনি রাত্রি যাপন করেছেন মার্সেল প্রেজেন্টস ‘হা-শো’র সিজন-৬ বরিশাল অঞ্চলের অডিশনে অংশ নিতে আসা বরগুনা জেলার আমতলী উপজেলা প্রতিযোগী সাইফুল ইসলাম।

তিনি বলেন, ‘হা-শো’ কে ভালবাসি, পছন্দকরি, তাই যতই কষ্ট হউক না কেন আমাকে এই অডিশনে অংশ নিতে হবে, আর সেই উদেশ্য নিয়েই বাড়ী থেকে এসেছি।

অডিশনে অংশ নিতে আসা বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলার তাহামিত ইসলাম বলেন, হাসি মানুষের সকল রোগ প্রতিরোধের ঔষধ। তাই হাসি দিয়ে আর হাসির কথা বলে মানুষকে সুস্থ্য রাখতে চাই। এমন ঔষধের দেখা মিলে একমাত্র ‘হা-শো’ অনুষ্ঠানে। তাইতে আমি এই অনুষ্ঠানে অংশ নিতে এসেছি।

‘হা-শো’র সিজন-৬ অডিশন’র পরিচালক জাহাঙ্গীর চৌধূরী বলেন, বরিশাল জোনের অডিশন পর্বে অংশ নিতে বিপুল সংখ্যক প্রতিযোগী রেজিস্ট্রেশন করেছেন। উপস্থিতিও ছিলো বেশ ভাল। তাই এই অডিশন শেষ করতে সময় লাগছে। আসা করি ‘হা-শো’ সিজন-৬ এর মাধ্যমে বরিশাল থেকে প্রতিভা খুঁজে বের করা যাবে। এখান থেকে ৫/৬ জনের রাজধানীতে মূল পর্বে যাওয়ার সুযোগ করে দেয়া যাবে।

তিনি আরো বলেন, অডিশন থেকে বিচারকদের বিচারে উঠে আসবে সেরা প্রতিযোগীরা। তাদের নিয়েই শুরু হবে ‘মার্সেল হা-শো’র মূল অনুষ্ঠান। হা-শো’ সিজন-৬ রিয়েলিটি শোতে ১ম পুরস্কার বিজয়ী পাবেন নগদ ৫ লাখ টাকা। ২য় পুরস্কার হিসেবে থাকছে নগদ ৩ লাখ টাকা ও ৩য় পুরস্কার নগদ ২লাখ টাকা। এছাড়া ৭ জন ফাইনালিষ্টের প্রত্যেকে পাবেন ১টি করে মার্সেল ইনভার্টার রেফ্রিজারেটর, বাদ পড়া প্রত্যেকে পাবেন মার্সেল এয়ারকন্ডিশনারের সৌজন্য গিফট হ্যাম্পার এ প্রতিপর্বের সেরা পারর্ফার পাবেন মার্সেল ওয়াশিং মেশিনের সৌজন্য গিফট হ্যাম্পার।

উল্লেখ্য ২০১৯ সালের ৬ সেপ্টেম্বর বরিশালে সর্বশেষ ‘হা-শো’র সিজন-৫ অডিশন পর্ব অনুষ্ঠিত হয়।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
   
Website Design and Developed By Engineer BD Network