২৫শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার

অ-প্রাতিষ্ঠানিক খাতে নিয়োজিত শ্রমিকদের শ্রম আইনে অর্ন্তভ‚ক্তির দাবী

আপডেট: নভেম্বর ২৭, ২০২১

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

বরিশাল ব্যুরো
কোভিট ১৯ এর কারনে অ-প্রাতিষ্ঠানিক খাতে নিয়োজিত শ্রমিকদের আয় কমেছে ৫০ ভাগ। এই শ্রমিকদের নেই জীবনের নিরাপত্তা। এমনকি ট্রেড ইউনিয়ন করলেও চাকুরীচুত হতে হয় এসব শ্রমিকদের। দেশের শ্রমিকদের মধ্যে অ-প্রাতিষ্ঠানিক শ্রমিক রয়েছে ৭৫ ভাগ। যার এক কোটি ১৭ লাখই মৎস্য শ্রম করে থাকে। আর ১৪ লাখ রয়েছে নারী শ্রমিক। ২০১৬-১৭ তে এ দেশে বেকার ছিল ১১ ভাগ। তা এখন বেড়ে হয়েছে ২৪ দশমিক ৮ ভাগ। শনিবার বরিশাল প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত বিদ্যমান সামাজিক সুরক্ষা পরিস্থিতি পর্যালোচনা এবং সামাজিক সুরক্ষা নিশ্চিত করতে শ্রম আইনের অর্ন্তভ‚ক্তির লক্ষে এডভোকেসী পরিকল্পনা কর্মশালায় বক্তারা এসব কথা বলেন।
বিলস্ ও এফইএস এর আয়োজনে অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন শ্রমিক কর্মচারী ঐক্য পরিষদের সমন্বয়কারী এ্যাড. একে আজাদ। জাতীয় শ্রমিক ফেডারেশনের বরিশাল জেলা কমিটির সভাপতি এসএম জাকির হোসেন এর সঞ্চলনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন এফইএস বাংলাদেশের প্রোগ্রাম সমন্বয়কারী ইকবাল হোসেন ও বাংলাদেশ ক্ষুদ্র মৎস্যজীবী ও জেলে সমিতির সভাপতি ইসরাইল পন্ডিত। অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বিলস্ এর সিনিয়র প্রোগ্রাম অফিসার মনিরুল কবির। অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তাব্য রাখেন চন্দ্রমোহন ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সিরাজুল হক হাওলাদার, জাতীয় শ্রমিক জোটের সভাপতি মো. মোসলেম সিকদার, জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দলের সাধারণ সম্পাদক মো. ফয়েজ আহম্মেদ খান, তুষার সেন, জোসনা বেগম প্রমুখ। ##

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
   
Website Design and Developed By Engineer BD Network