২৫শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার

মির্জাগঞ্জে ছয় ইউপিতে আগামীকাল ভোটগ্রহণ, প্রস্তুত ৬১টি কেন্দ্র

আপডেট: নভেম্বর ২৭, ২০২১

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

মির্জাগঞ্জ (পটুয়াখালী) প্রতিনিধিঃ পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জ উপজেলার ছয়টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আগামীকাল ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। এবার চেয়ারম্যান পদে মোট ১৯ জনসহ তিনটি পদে মোট ২৬৪ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু, শান্তিপূর্ণ ও উৎসবমুখর পরিবেশে অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। ইতিমধ্যে কেন্দ্রে কেন্দ্রে নির্বাচনী সরঞ্জাম আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ভোটগ্রহণ কর্মকর্তা পৌঁছে গেছেন। প্রতিটি কেন্দ্রের সামনের সড়কসহ চারপাশে ছেয়ে গেছে নির্বাচনী পোস্টার ও ব্যানারে। সেখানে বিরাজ করছে উৎসবমুখর পরিবেশ। রাত পোহালেই শুরু হবে ভোট গ্রহণ। তাই অনেকেই আনন্দ আবার অনেকে উদ্বেগ ও উৎকণ্ঠার মধ্যেও রয়েছেন বলে জানান ভোটাররা। কে হবে চেয়ারম্যান ও মেম্বার এ নিয়ে ভোটারদের মধ্যে চলছে চুলচেরা বিশ্লেষণ।

উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা যায়, ছয়টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আ. লীগ, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ও স্বতন্ত্র প্রার্থীসহ মোট ১৯ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এরমধ্যে কাকড়াবুনিয়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মাহবুব আলম স্বপন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। ওই ইউনিয়নের সাধারণ সদস্য ও সংরক্ষিত নারী আসনের সদস্য পদে ভোট গ্রহণ হবে। ছয়টি ইউনিয়নে সংরক্ষিত আসনে ৬৩ ও সাধারণ সদস্য পদে ১৮২ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। উপজেলায় ৬১টি কেন্দ্রে মোট এক লাখ ৮ হাজার ৩৭৯ জন ভোটার ভোট প্রয়োগ করবেন। ভোটারদের মধ্যে পুরুষ ভোটার ৫২ হাজার ৮৫ জন ও নারী ভোটার রয়েছেন ৫০ হাজার ৯৯৪ জন। এর মধ্যে মাধবখালী ইউনিয়নে ১৭ হাজার ৫৭১, মির্জাগঞ্জ ইউনিয়নে ১৮ হাজার ৯৫৫, আমড়াগাছিয়া ইউনিয়নে ১৯ হাজার ৬৯১, দেউলী সুবিদখালী ইউনিয়নে ১৭ হাজার ৯৮৭, কাকড়াবুনিয়া ইউনিয়নে ১৪ হাজার ৪৯৯ ও মজিদবাড়িয়া ইউনিয়নে ১৪ হাজার ৩৭৬ জন ভোটার রয়েছেন।

উপজেলা নির্বাচন ও রিটার্নিং কর্মকর্তা (চলতি দ্বায়িত্বপ্রাপ্ত) মোঃ শাহাদাৎ হোসেন জানান, আগামীকাল রবিবার সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ করা হবে। ইতিমধ্যে ৬১টি ভোটকেন্দ্র প্রস্তুত করা হয়েছে। প্রতিটি কেন্দ্রে নির্বাচনী সরঞ্জামসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও ভোটগ্রহণ কর্মকর্তাদের পাঠানো হয়েছে। রবিবার সকালে প্রতিটি কেন্দ্রে ব্যালট পাঠানো হবে। এই নির্বাচন শতভাগ অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হবে।

মির্জাগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আনোয়ার হোসেন তালুকদার জানান, গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে উপজেলার ৬১টি কেন্দ্রের মধ্যে ২০-২৫টি কেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। প্রতিটি কেন্দ্রে পর্যাপ্ত পুলিশ ও আনসার সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। বিজিবি, র‍্যাব ও মোবাইল টিমের সদস্যরা টহলে রয়েছেন। এছাড়াও নির্বাহী ও এক্সেকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেটগণ সার্বক্ষণিক নজরদারি করছেন।

তিনি আরো জানান, সব মিলিয়ে ভোটাররা যাতে ভোট দিয়ে নিরাপদে বাড়ি ফিরতে পারেন এবং অবাধ, সুষ্ঠু, শান্তিপূর্ণ ও উৎসবমুখর পরিবেশে ভোটগ্রহণ শেষ করতে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
   
Website Design and Developed By Engineer BD Network