১লা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, শুক্রবার

রংপুরে সংস্কৃতি কর্মী হত্যার ঘটনায় ৮ জনের যাবজ্জীবন

আপডেট: অক্টোবর ৩০, ২০২৩

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

রিয়াজুল হক সাগর,রংপুর প্রতিনিধি:
রংপুরে সংস্কৃতি কর্মী রোমান সরকার হত্যাকান্ডের ঘটনায় ৮ জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছে আদালত।সোমবার (৩০ অক্টোবর) দুপুরে রংপুর বিশেষ জজ আদালতের বিচারক মোঃ হায়দার আলী এ রায় প্রদান করেন। দন্ডপ্রাপ্তরা হলো, নগরীর পশ্চিম জুম্মাপাড়া মারুয়াপট্টি এলাকার হাফেজ আলীর ছেলে মোঃ আনিছ, মোঃ আশরাফুল, মোঃ আতারুল, মোঃ আমিনুল ওরফে বুদ্ধা, মোঃ আলামিন, জয়নালের ছেলে মোঃ খোকন ওরফে পাকনা খোকন, খয়ের মুন্সির ছেলে মোঃ মোজাম্মেল এবং কাওসারের ছেলে নুরুন্নবী। দন্ডপ্রাপ্ত প্রত্যেক আসামীকে ১০ হাজার টাকা করে অর্থদন্ড দেওয়া হয়েছে। রায় ঘোষণার সময় আদালতে ৭ জন আসামী উপস্থিত থাকলেও আসামী নুরুন্নবী পলাতক রয়েছে। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন, সরকারী কৌশুলী আব্দুল মালেক। মামলা সূত্রে জানা যায়, পশ্চিম জুম্মাপাড়া এলাকার ভাইবোন নাট্যগোষ্ঠির সংগঠক রোস্তম সরকারের বড় ছেলে সংস্কৃতি কর্মী রোমান স্থানীয় মাদকসেবীদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করায় তাদের সাথে বিরোধের সৃষ্টি হয়। এক সময় পুলিশ আসামীদের মাদকসহ গ্রেফতার করলে এ ঘটনায় রোমানের সহযোগিতা রয়েছে বলে তারা সন্দেহ করে। পরবর্তীতে আসামীরা রোমানের পরিবারের সাথে সু-সম্পর্ক গড়ে তোলে। ২০০৯ সালের ২২ জুলাই সন্ধ্যায় রোমান বাজার করতে গেলে আসামীরা তাকে কৌশলে চিড়িয়াখানার প্রাচীরের কাছে ডেকে এনে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। পরে তাকে হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক রোমানকে মৃত ঘোষণা করে। এ ঘটনায় রোস্তম আলী বাদী হয়ে ৯ জনকে আসামী করে কোতয়ালী থানায় মামলা দায়ের করেন। পরবর্তীতে সাক্ষ্য প্রমানের ভিত্তিতে আদালত সোমবার ৭ জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড এবং ১০ হাজার টাকা করে অর্থদন্ড প্রদান করে। অনাদায়ে আর ৩ মাসের সশ্রম কারাদন্ড প্রদান করা হয়। আসামী নুরুন্নবীকে গ্রেফতারে পরোয়ানা জারীর আদেশ দিয়েছে আদালত। সরকারী কৌশুলী আব্দুল মালেক বলেন, বাদী পক্ষ ন্যায় বিচার পেয়েছে। তারা আদালতের এ রায়ে সন্তুষ্ট।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
     
Website Design and Developed By Engineer BD Network