১৯শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, শুক্রবার

শিরোনাম
তেলবাহী লড়ি উল্টে গিয়ে আগুন লেগে এক জনের মৃত্যু। ভূমি বিষয়ক তথ্যাদি স্কুলের পাঠ্যক্রমে অন্তর্ভুক্ত করার উদ্যোগ গ্রহণ করো হয়েছে-ভূমিমন্ত্রী মির্জা ফকরুলরা তারেক জিয়ার নির্দেশে জনগনের সাথে প্রতারনা ও তামশা করছে-আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বিগ বার্ড ইন কেইজ: ২৫ শে মার্চ রাতে বঙ্গবন্ধুর গ্রেফতার  ঢাবি ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগে ১ কোটি টাকার বৃত্তি ফান্ড গঠিত হাইকোর্টের রায়ে ডিন পদে নিয়োগ পেলেন যবিপ্রবির ড. শিরিন জয় সেট সেন্টার’ থেকে মিলবে প্রশিক্ষণ, বাড়বে কর্মসংস্থান: পীরগঞ্জে স্পীকার বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস আগামীকাল টুঙ্গিপাড়ায় যাচ্ছেন রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী, সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন বিশিষ্ট রবীন্দ্র সংগীত শিল্পী সাদি মোহম্মদ আর নেই

জাবিতে ঘটমান গণধর্ষণের প্রতিবাদে ঢাবি শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ৪, ২০২৪

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

মো: ইমন হোসেন, ঢাবি প্রতিনিধি:
গতকাল জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) এক দম্পতিকে ডেকে এনে স্বামীকে আবাসিক হলে আটকে রেখে স্ত্রীকে ধর্ষণ – এরই প্রতিবাদে আজ মানববন্ধন করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

আজ ০৪ ফেব্রুয়ারি (রবিবার) দুপুর পৌনে ২ টায়
সন্ত্রাস বিরোধী রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত মানববন্ধনে সাধারণ ছাত্ররা উক্ত ঘটনার প্রতিবাদে বিভিন্ন স্লোগান – “আমার বোন ধর্ষিত কেন, প্রসাশন জবাব চাই,’ ‘জাবিতে ধর্ষন কেন, প্রসাশন জবাব চাই,’ ‘বাংলাদেশে হবে না,ধর্ষকদের আস্তানা’, ‘ধর্ষকদের কালো হাত, ভেংগে দাও গুড়িয়ে দাও” দিতে লক্ষ করা যায়।

স্লোগান শেষে সাধারণ শিক্ষার্থীদের পক্ষে প্রারম্ভিক বক্তব্য রাখেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ১ম বর্ষের ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের আব্দুল্লাহ আল নোমান। তিনি বলেন, “আজ বাংলাদেশ ডিজিটাল থেকে স্মার্ট বাংলাদেশের দিকে ধাবিত হচ্ছে। এমন সময় জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ঘটনাটি ন্যক্কারজনক। মানবিক জায়গা থেকে আমরা উক্ত ঘটনার তীব্র নিন্দা ও ধিক্কার জানাই।”

এছাড়া দর্শন বিভাগের শিক্ষার্থী অদিতা ইসলাম এবং বাংলা বিভাগের শিক্ষার্থী মোসাদ্দেক হোসেনও বক্তব্যের মাধ্যমে উক্ত ন্যক্কারজনক ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন।

শিক্ষার্থীদের দাবি প্রসাশন আজ উপযুক্ত পদক্ষেপ নিতে ব্যর্থ হয়েছে বলেই সিলেটের মতো জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয়ও একই ঘটনা ঘটেছে। তারা জানিয়েছে, “স্বাধীনতা অর্জন হয়ে ছিল আমাদের মা-বোনের ইজ্জতের বিনিময়। আজ স্বাধীন হওয়ার পরও এমন ঘটনা আমাদের জন্য খুব বেশি লজ্জাজনক। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পবিত্র স্থান, এখানে সবাই পড়ালেখা করতে আসে। অথচ আজ সেই বিশ্ববিদ্যালয়ই এমন ঘটনা প্রতিফলিত হচ্ছে। এর পেছনে যে শক্তি ও হাত কাজ করছে সেটাকে সামনে আনতে হবে নতুবা একসময় বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার উদ্দেশ্য ব্যহত হবে।”
পরবর্তীতে রাজু ভাস্কর্য থেকে ভিসি চত্বরের দিকে স্লোগান মুখরিত মিছিল সংঘটিত হয় এবং ভিসি চত্বরে এসে এ মানববন্ধনের সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
     
Website Design and Developed By Engineer BD Network